নিউইয়র্কে দুই বাংলাদেশি হত্যাকাণ্ডে গ্রেপ্তার ব্যক্তি ৫ দিনের রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০১ মে ২০২৪, ০৩:৪৫ পিএম | আপডেট: ০৫ মে ২০২৪, ১২:২০ এএম

দুই বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ডেল ও কামিংসকে বাফেলো সিটি কোর্টে হাজির করে নিউইয়র্ক পুলিশ। ছবি: সংগৃহীত

দুই বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ডেল ও কামিংসকে বাফেলো সিটি কোর্টে হাজির করে নিউইয়র্ক পুলিশ। ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বাফেলো সিটিতে দুই বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় ডেল ও কামিংস নামে গ্রেপ্তার ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) স্থানীয় সময় বাফেলো সিটি কোর্টে হাজির করে পুলিশ কামিংসকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক স্যামুয়েল পি ডেভিস তা মঞ্জুর করেন। এরিক কাউন্টির ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি মাইাকেল জে কিন এ আবেদন করেন। এর আগে রবিবার ৩১ বছর বয়সী ওই যুবককে সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি জে কিন বলেন, কামিংসের বিরুদ্ধে বাফেলো অপরাধ আদালতে বেশ কয়েকটি মামলা বিচারাধীন। থাকার জন্য নির্দিষ্ট কোনো ঠিকানা না থাকায় মামলাগুলোর একটিতেও হাজিরা দেননি তিনি। হত্যাকাণ্ডের প্রায় একই সময়ে ঘটনাস্থলের আশেপাশের সিসিটিভি ফুটেজে তাকে দেখা গেছে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তির কাছ থেকে একটি অটোমেটিক রাইফেল জব্দের কথা জানিয়ে ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি বলেন, অস্ত্রটি বেআইনিভাবে তার দখলে ছিল। দুই বাংলাদেশিকে হত্যায় সেটি ব্যবহার করা হয়েছে কি না, তা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

জে কিন জানান, বেআইনি অস্ত্র বহনের মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে ডেল ও’ কামিংস নামে ভাসমান এ যুবকের সর্বোচ্চ ১৫ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। আর জোড়া খুনের ঘটনার দোষী সাব্যস্ত হলে আজীবন তাকে কারাগারে থাকতে হতে পারে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (২৫ এপ্রিল) অজ্ঞাত এক বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত হন সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার আবু সালেহ মোহাম্মদ ইউসুফ (৫৩) ও কুমিল্লার বাবুল মিয়া (৫৮)। বাবুল মিয়া আগে সপরিবারে থাকতেন ম্যারিল্যান্ডে। সম্প্রতি তিনি বাফেলোতে বাড়ি কেনেন। আর ইউসুফ গত ডিসেম্বরে স্ত্রী ও দুই মেয়েসহ বাফেলোতে আসেন স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য। ঘটনার সময় তারা বাড়ির সংস্কারের কাজ করছিলেন। গুলিতে একজন ঘটনাস্থলেই মারা যান। গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু হয় আরেকজনের।

এ ঘটনার পর পরই ডাকা হয় একটি সোয়াট টিমকে। এসময় স্থানীয়দের বাড়ির বাইরে বের না হওয়ার অনুরোধ জানায় পুলিশ। পরে ঘটনাস্থলের পাশের একটি সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ডেল ও’ কামিংস নামে ভাসমান ওই যুবককে শনাক্ত করে পুলিশ। তাকে ধরিয়ে দিতে সাড়ে ৭ হাজার ডলার পুরস্কার ঘোষণা করা হয় ওইদিন।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh