খাল থেকে উদ্ধার করা রিকশা-তোশক-সোফা নিয়ে ডিএনসিসির বর্জ্য প্রদর্শনী

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ০৫:৩৬ পিএম

ডিএনসিসির বর্জ্য প্রদর্শনীতে খাল থেকে উদ্ধার করা রিকশা-সোফা। ছবি: সংগৃহীত

ডিএনসিসির বর্জ্য প্রদর্শনীতে খাল থেকে উদ্ধার করা রিকশা-সোফা। ছবি: সংগৃহীত

জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে খালে, ড্রেনে ও যত্রতত্র ফেলে দেয়া বর্জ্যের ৩ দিনব্যাপী প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)। এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

আজ শনিবার (১১ মে) গুলশানে ডিএনিসিসির নগরভবনের সামনে এ আয়োজন করা হয়েছে, যা সবার জন্য উন্মুক্ত। 

ডিএনসিসির পক্ষ থেকে জানানো হয়, জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে খাল, ড্রেন ও অন্যত্র ফেলে দেয়া এসব বর্জ্য নিয়ে তিন দিনব্যাপী প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের ডিএনসিসি এলাকার বিভিন্ন খাল থেকে ওঠানে বর্জ্য নিয়ে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। নগরবাসীকে দেখাতে চাই, তারা কী ধরনের বর্জ্য খালের ভেতরে ফেলছে। এটি একটি জনসচেতনতামূলক প্রদর্শনী।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে শিক্ষার্থীরা এই প্রদর্শনী দেখতে এসেছেন। মেয়র আতিকুল ইসলাম তাদের এই বর্জ্য দেখাচ্ছেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, শাড়ি-পাঞ্জাবি বিভিন্ন ধরনের প্রদর্শনীর আয়োজন হয়। ময়লা-আবর্জনার প্রদর্শনী আমরা বড় আকারে প্রথমবারের মতো আয়োজন করলাম। প্রদর্শনী করতে চেয়েছিলাম তিন দিন তবে এই প্রদর্শনে চলবে আগামী শনিবার পর্যন্ত। এখানে সব ধরনের আবর্জনা আছে। ড্রেন ও খাল থেকে আমরা পেয়েছি, সোফা, সুটকেস, কমোড ও রিকশা। তোশক বালিশ ও রিকশা যদি ড্রেনে, খালে বা লেকের মধ্যে ফেলা হয়, তাহলে তো জলাবদ্ধতা হবেই। কোন খাল লেক বা ড্রেনের থেকে কোন ময়লা- আবর্জনা সংগ্রহ করেছি তাও লিখে রাখা হয়েছে। 

নগরবাসীকে আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, আসুন আমরা যেন ড্রেনে,খালে বা লেকে কোনো ধরনের ময়লা না ফেলি। গত ৬ মাস যাবত আমরা ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করে যাচ্ছি। আরেক দিক থেকে ময়লা-আবর্জনা ভরাট হচ্ছে। চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্যই এই প্রদর্শনীর আয়োজন করেছি।

তিনি আরও বলেন, নগরবাসীদের বলতে চাই আপনাদের সহযোগিতা আমাদের একান্ত প্রয়োজন। সাধারণ একটি পিট থেকে আজকে প্লাস্টিকের বোতল উদ্ধার করা হয়েছে। রাজধানীতে কোটি লোকের বসবাস। নগরবাসী যদি এগিয়ে না আসে রাজধানী পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন আমাদের (ডিএনসিসির) জন্য দুষ্কর ব্যাপার হয়ে যাচ্ছে।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh