শরণার্থীদের দুর্দশার গল্প আলোকচিত্রে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৩ মে ২০২৪, ০৫:৪৩ পিএম | আপডেট: ১৩ মে ২০২৪, ০৫:৪৬ পিএম

শরণার্থীদের দুর্দশার গল্প আলোকচিত্রে। ছবি: সাম্প্রতিক দেশকাল

শরণার্থীদের দুর্দশার গল্প আলোকচিত্রে। ছবি: সাম্প্রতিক দেশকাল

১৯৭১, বাঙালি জাতিসত্তার সংগ্রাম, ত্যাগ ও গৌরবের এক মহান অধ্যায়। আর এই ঐতিহাসিক অধ্যায়ের নানা মুহূর্তকে ক্যামেরাবন্দি করেছেন ভারতের দ্য স্টেটমেন্ট পত্রিকার প্রধান আলোকচিত্র সাংবাদিক রঘু রাই। ভারতের আশ্রয়শিবিরগুলো ঘুরে ঘুরে উদ্বাস্তু বাংলাদেশিদের অবর্ণনীয় কষ্টের জীবনযাত্রা তুলে ধরেন তিনি তার ক্যামেরায়।

পুরো নাম তার রঘুনাথ রাই চৌধুরী, কিন্তু ফটোগ্রাফির জগতে রঘু রাই নামেই বিখ্যাত হয়ে আছেন। তাকে ‘ফাদার অব ইন্ডিয়ান ফটোগ্রাফি’ নামেও অভিহিত করা হয়। পরিবার ও পরিস্থিতির চাপে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়েছিলেন। পড়াশোনা শেষে দিল্লিতে একটি সরকারি চাকরিতেও যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু এ ছকে বাঁধা জীবন রঘু রাইয়ের ভালো লাগেনি। বড় ভাই এস.পাল, যিনি নিজেও ছিলেন একজন আলোকচিত্রী, তার সহযোগিতায় যোগ দিলেন ‘দ্য স্টেটম্যান পত্রিকায়’। এরপর থেকেই ছুটে বেড়িয়েছেন তিনি। 

১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারতে অবস্থিত শরণার্থী ক্যাম্পগুলো চষে বেড়িয়েছেন রঘু রাই। ক্যামেরার লেন্সে তুলে এনেছেন ক্যম্পের নানা দুর্দশার চিত্র। তুলেছেন ক্রন্দনরত শিশু থেকে শুরু করে চোখ কোটরে ঢুকে যাওয়া বৃদ্ধের ছবি। মুক্তিবাহিনী ও ভারতীয় সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধক্ষেত্রে প্রবেশ করেও ছবি তুলেছেন। মুক্তিযুদ্ধের কালজয়ী সব ছবি তোলার জন্য ১৯৭২ সালে রঘু রাইকে ভারতীয় সরকার ‘পদ্মশ্রী’ পুরস্কারে ভূষিত করে। 

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময়ে তোলা রঘু রাইয়ের এসব প্রকাশিত ও অপ্রকাশিত ছবি নিয়ে ৫ মে থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের জয়নুল গ্যালারিতে ‘Rise of A Nation’ শীর্ষক প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও দুর্জয় বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের যৌথ ব্যবস্থাপনায় এ প্রদর্শনীটি আয়োজিত হয়েছে। আগামী ১৯ মে পর্যন্ত এ প্রদর্শনী চলবে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক প্রদর্শনীটির উদ্বোধন করেন। 

প্রদর্শনীর যৌথ আয়োজক দুর্জয় বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা দুর্জয় রহমান এ আয়োজন সম্পর্কে বলেন, এ প্রদর্শনী আয়োজনের কারণ হচ্ছে দুটো-এক. এ ছবিগুলো সংগ্রহ করার পর আমরা মনে করেছি যে, ছবিগুলোর আর্কাইভ হওয়া দরকার। আমরা তা করেছি এবং একটা পাবলিকেশনের ব্যবস্থা করছি। দুই. আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামের যে ইতিহাস ও ত্যাগ, মুক্তিযোদ্ধাদের পরিশ্রম, সে সময়ের শরণার্থী যারা আমাদের আগের জেনারেশন, তাদের যে ভোগান্তি তার একটি সচিত্র ধারণা ছবিগুলো বহন করে-এটি নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়া। এই ছবি দেখে আমাদের নতুন প্রজন্ম যাতে বুঝতে পারে, আমাদের দেশ স্বাধীনের যে ইতিহাস, তার পেছনে কত রক্ত, কত ত্যাগ, তিতিক্ষা। 

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh