নিবন্ধিতরা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হজে যেতে পারবেন

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

যদি ২০২২ সালে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হয় এবং দেশ থেকে হজে যাওয়ার অনুমতি পাওয়া যায়, তবে ইতোপূর্বে যারা প্রাক-নিবন্ধন ও নিবন্ধন করেছেন, তারা ক্রমানুসারে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হজে যেতে পারবেন বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারির কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালে সৌদি আরবের অভ্যন্তরে সীমিত পরিসরে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বহির্বিশ্ব থেকে কোনো হজযাত্রী সৌদি আরবে যাওয়ার সুযোগ পাননি। সে ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ থেকেও কোনো হজযাত্রী পবিত্র হজব্রত পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি আরবে যাননি।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় বাংলাদেশ থেকে হজে গমনেচ্ছু নিবন্ধিত ব্যক্তিদের বিষয়ে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সভাপতির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মো. ফরিদুল হক খান বলেন, কোনো প্রাক-নিবন্ধন ও নিবন্ধনকারী ব্যক্তি জমা করা অর্থ উত্তোলন করতে চাইলে নির্ধারিত নিয়ম অনুসরণ করে আবেদনের করে সে অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকারি ব্যবস্থাপনাধীন হজে যাওয়ার জন্য ২০২০ সালে তিন হাজার ৪৫৭ জন নিবন্ধন করেছিলেন। এদের মধ্যে ৭৫৭ জন তাদের নিবন্ধন বাতিল করে রিফান্ড নিয়েছেন এবং দুই হাজার ৭০০ জন বর্তমানে নিবন্ধিত রয়েছেন।

তিনি বলেন, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২০২০ সালে হজে যাওয়ার জন্য ৬১ হাজার ১৪২ জন নিবন্ধন করেছিলেন। তাদের মধ্যে সাত হাজার ৭১৯ জন তাদের নিবন্ধন বাতিল করে রিফান্ড নিয়েছেন এবং এখন ৫৩ হাজার ৪২৩ জন নিবন্ধিত রয়েছেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত বছরের ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নিবন্ধন প্রক্রিয়া চালু ছিলো। এরপর আর কোনো নিবন্ধন হয়নি। তবে, হজের প্রাক-নিবন্ধন প্রক্রিয়া চালু রয়েছে। এ পর্যন্ত সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধিত ব্যক্তির সংখ্যা পাঁচ হাজার ২২৪ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাক-নিবন্ধিত ব্যক্তির সংখ্যা এক লাখ ৭৪ হাজার ১৫৪ জন।

তিনি বলেন, নিবন্ধিত হজযাত্রীদের পাসপোর্টের মেয়াদ অতিক্রান্ত হয়ে থাকলে ২০২২ সালে হজে যাওয়ারা ক্ষেত্রে তা নবায়নের ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সভায় ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নূরুল ইসলাম ছাড়াও সভায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বেসামরিক বিমান পরিবহনও পর্যটন, পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র, পাসপোর্ট অধিদফতর, ইসলামিক ফাউডেশন, ব্যাংকসমূহ, হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) প্রতিনিধিসহ হজ ব্যবস্থাপনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দফতর ও সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //