পশ্চিমবঙ্গের দ্বিতীয় দফার ভোটেও নজিরবিহীন নিরাপত্তা

প্রথম দফার মতোই ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে দ্বিতীয় দফার ভোটে নজিরবিহীন নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। 

পাশপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের আত্মরক্ষার্থে গুলি চালানোর নির্দেশ দিয়েছে কমিশন। নিজেদের রক্ষা করতে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা প্রয়োজনে গুলিও চালাতে পারবে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপর হামলা কোনোভাবেই বরদাস্ত করা হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

আগামী বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) রাজ্যে এই দফায় ৩০টি বিধানসভা কেন্দ্রের মোট ১০ হাজার ৬২০টি বুথে মোতায়েন থাকবে মোট ৬৫১ কোম্পানি আধা সেনা। শুধু তাই নয় এই মুহূর্তে বঙ্গ রাজনীতির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও হাইভোল্টেজ কেন্দ্র নন্দীগ্রাম বিধানসভার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকছে ২১ কোম্পানি আধাসেনা। 

গতকাল সোমবার (২৯ মার্চ) দ্বিতীয় দফায় বাঁকুড়া, দুই মেদিনীপুর ও সুন্দরবন পুলিশ জেলার প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সাথে ভিডিও কনফারেন্স করেন রাজ্যের প্রধান নির্বাচন কর্মকর্তা আরিজ আফতাব। কোরোভাবেই প্রথম দফার পুনরাবৃত্তি চাইছে না নির্বাচন কমিশন। বৈঠকে জেলাগুলোকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জারি রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন সিইও। ভোটের দুদিন আগে থেকেই সবরকম ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

এই দফায় বাঁকুড়ায় মোতায়েন থাকবে ১৭০ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী। পূর্ব মেদিনীপুরে রাখা হচ্ছে ১৯৯ কোম্পানি বাহিনী। পশ্চিম মেদিনীপুরে নিরাপত্তার দায়িত্ব থাকছে ২১০ কোম্পানি ও সুন্দরবন পুলিশ জেলার আসনগুলোর ভোটের নিরাপত্তা দায়িত্বে থাকবে মোট ৭২ কোম্পানি আধাসেনা। এছাড়াও এই দফায় মোট ৭৫০টি সেক্টর থাকছে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি রাজ্য পুলিশের ইন্সপেক্টর ও সাব-ইন্সপেক্টর পদমর্যাদার কর্মকর্তারা দায়িত্বে থাকবেন। কোনো অশান্তির ঘটনা ঘটলে দ্রুত সেখানে পৌঁছানোর জন্য সব মিলিয়ে ৬২৪টি কুইক রেসপন্স টিম থাকবে। এছাড়াও হেভি রেডিও ফ্লায়িং স্কোয়াডসহ, সর্বত্র নাকা চেকিংয়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলে কমিশন সূত্রে খবর।

এদিনের ভিডিও কনফারেন্সে নন্দীগ্রাম কেন্দ্রের দিকে বিশেষ নজর দিতে বলা হয়েছে। শুধুমাত্র এই হাইভোল্টেজ কেন্দ্রের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে ২১ কোম্পানি বাহিনী। ভোটের দিন বা তার আগে যাতে কোনো ধরনের উত্তেজনা না ছাড়ায় তা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নন্দীগ্রামে সব মিলিয়ে বুথের সংখ্যা ৩৪৭। ভোটের দিন সব মিলিয়ে শুধুমাত্র নন্দীগ্রামে ২১টি কুইক রেসপন্স টিম টহল দেবে। 

নন্দীগ্রাম থেকেই লড়াই করছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার বিপক্ষে রয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী ও সংযুক্ত মোর্চার মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। - সংবাদ প্রতিনিধি ও কলকাতা২৪/৭

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh