ভারতে ছড়াচ্ছে বার্ড ফ্লু, বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা

ভারতের ১০টি রাজ্যে ইতিমধ্যেই বার্ড ফ্লু ছড়িয়েছে। এরমধ্যে বাংলাদেশের সীমান্তঘেঁষা পশ্চিমবঙ্গও রয়েছে। রাজ্যে সতর্কতা জারি করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। 

তবে সবচেয়ে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি রাজস্থান এবং দিল্লিতে। দিল্লিতে ইতিমধ্যেই খোলাবাজারে মুর্গির মাংস বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ঘটনাচক্রে, এখনও পর্যন্ত বার্ড ফ্লু-র প্রকোপ দক্ষিণ, পশ্চিম এবং উত্তর ভারতের রাজ্যগুলির মধ্যেই সীমাবদ্ধ। পূর্ব ভারতে এখনও সেভাবে এর প্রকোপ দেখা দেয়নি। তবে তার আগে থেকেই সতর্ক হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার।

গত সপ্তাহে ঝাড়খণ্ডের বোকারো জেলায় বার্ড ফ্লু আক্রান্ত চার হাজার হাঁস-মুরগি মেরে ফেলা হয়। এমন অবস্থায় বাংলাদেশে দ্রুত সতকর্তা অবলম্বনের পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের। তারা বলছেন, সীমান্ত দিয়ে হাস-মুরগি বা যেকোনো পাখি কোয়ারিন্টিন ছাড়া আনা যাবে না, খামারে জৈব সুরক্ষা জোরদার করতে হবে এবং ডিম বা মুরগির মাংস ভালোভাবে সিদ্ধ না করে খাওয়া যাবে না। সচেতন না হলে রোগটি ছড়িয়ে পড়তে পারে।

পশ্চিমবঙ্গের প্রাণিসম্পদ দপ্তরের সূত্রের খবর, রাজ্যে প্রতি সপ্তাহে দুই কোটি পঞ্চাশ লাখ কেজি মুরগির মাংসের প্রয়োজন। পাশাপাশি প্রতিদিন ডিম দরকার হয় তিন লাখ। স্রেফ গুজবের কারণে গত দু’দিনে মুরগির মাংসের পাশাপাশি ডিম বিক্রিও ২০ শতাংশ কমেছে।

চিকিৎসকরা জানান, দীর্ঘ সময় জ্বর, সর্দি-কাঁশি, গলাব্যথা, ডায়রিয়া এই ভাইরাসের আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের (বিএসএমএমইউ) সহকারী প্রক্টর ডা. বশির আহমেদ জয় বলেন, এই ভাইরাসে আক্রান্ত অনেক রোগীর জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও নিউমোনিয়া হতে পারে। এ ছাড়া কারও যদি জটিল রোগ থাকে তাহলে তার মৃত্যুও হতে পারে।

শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান ডক্টর সাইফুল ইসলাম বলেন, খামারগুলোর সুরক্ষা ও সীমান্তে নজরদারি বাড়াতে হবে। বিশেষ করে, ভারত থেকে কোনোক্রমেই জীবিত কিংবা মৃত মুরগি, ডিম বাংলাদেশে এই মুহূর্তে আনা যাবে না। একইসঙ্গে পোলট্রি খামারগুলোতে জৈব সুরক্ষা জোরদার করতে হবে।

এদিকে বার্ড ফ্লু প্রতিরোধ ও জনস্বাস্থ্য সুরক্ষায় পোলট্রি খামারিদের বাড়তি সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশ দিয়েছে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2023 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //