চরিত্রের প্রয়োজনে সব করতে রাজি মিথিলা

কলকাতার আলোচিত ওয়েব সিরিজ ‘মন্টু পাইলট’ এর আসন্ন সিজনে অভিনয় করবেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী রাফিয়াত রশীদ মিথিলা। সিরিজটির ‘বহ্নি’ চরিত্রের মিথিলার লুক প্রকাশ্যে এসেছে গত ২৯ মার্চ।

যা এরই মধ্যে নজর কেড়েছে। ‘বহ্নি’ ধনাঢ্য বাবার আদুরে মেয়ে। ঘটনাচক্রে নীলকুঠিতে চলে আসে সে। এখানে এসে নিজেকে নতুন করে চিনতে পারে। এক সময় ‘বহ্নি’ নারীশক্তিতে বলীয়ান হয়ে অতি মানবীতে পরিণত হয়। চরিত্রটিতে বারবণিতার যন্ত্রণা রয়েছে বলে জানান মিথিলা।

এ নিয়ে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে কথা বলেছেন মিথিলা। তার কাছে জানতে চাওয়া হয় সিরিজটিতে সাহসী পোশাক বা সাহসী দৃশ্যে তাকে দেখা যাবে কিনা? জবাবে মিথিলা বলেন—‘‘আমি ঠিক জানি না, তথাকথিত ‘সাহসী’ কাকে বলে! চরিত্রের খাতিরে যা করতে হবে সেটাই করব। একজন অভিনেতার সেটাই করা উচিত। রাজর্ষি দের ‘মায়া’ সিনেমায় আমাকে যেভাবে দেখা যাবে সেটা যথেষ্ট সাহসী। এর আগে ওই চরিত্রে, ওই সাজে আমাকে কেউ দেখেননি। সাহসী মানেই খোলামেলা পোশাক আর চুম্বন দৃশ্যে অভিনয় নয়। আমি অন্তত তেমনটাই মনে করি।’’

তাহসান-মিথিলার আয়রা নামে একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। সময়ের সঙ্গে বেড়ে উঠছে আয়রা। এ ধরনের চরিত্র নিয়ে আপনাকে কি প্রশ্নের মুখে পড়তে হবে? ব্যাখ্যা করে এ বিষয়ে মিথিলা বলেন, ‘আমার কাজ দেখে আয়রা প্রশ্ন করবে সেটাই স্বাভাবিক। আমি আরো নানা স্বাদের চরিত্রে অভিনয় করব। পূর্ণবয়স্ক হওয়ার পর মেয়ে সেগুলো দেখবে, খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে জানতে চাইবে। না হলে জানবে কী করে, শিখবে কী করবে? মানুষের জন্য ওর মনে সহানুভূতি জন্মাবে কী করে?’

গত ২৭ জানুয়ারি কলকাতার কালীঘাটে পূজা দিয়ে সিরিজটির শুটিং শুরু করেন নির্মাতা। আগামী মাসের শেষে অথবা মে মাসে সিরিজটি মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে।

শেক্সপিয়রের ‘ম্যাকবেথ’ নিয়ে নির্মিত হচ্ছে ‘মায়া’ চলচ্চিত্র। এর নাম ভূমিকায় দেখা যাবে মিথিলাকে। রাজর্ষি দে পরিচালিত এ সিনেমার শুটিং গত আগস্টে শেষ হয়েছে। টলিউড চলচ্চিত্রে এটিই মিথিলার প্রথম কাজ। এছাড়াও পরিচালক রিঙ্গো ব্যানার্জির ‘অ্যা রিভার ইন হেভেন’ সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন মিথিলা। এতে তার বিপরীতে দেখা যাবে ববি চক্রবর্তীকে।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //