আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হচ্ছে শুক্রবার

জুনাইদ আহমেদ পলক। ফাইল ছবি

জুনাইদ আহমেদ পলক। ফাইল ছবি

দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে তিন দিনব্যাপী ‘আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড (আবিসিওএল)’। হংকং থেকে শুরু হওয়া বহুল প্রত্যাশিত এই অলিম্পিয়াড আগামী ৮ অক্টোবর (শুক্রবার) শুরু হবে। দেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষে এই বিশেষ আয়োজন অন্যমাত্রা যোগ করবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলসহ ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ এবং টেকনোহেভেন কোম্পানি লিমিটেড যৌথভাবে ‘আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড ২০২১’ আয়োজন করছে।

গত বুধবার (৬ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারের বিসিসি অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক এ তথ্য জানান। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) সংবাদ সম্মেলনটির আয়োজন করে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, তরুণ প্রজন্মের জন্য প্রতি বছরই বিশেষভাবে প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়। হংকং থেকে শুরু হওয়া অলিম্পিয়াড এবারই প্রথম বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের (বিসিসি) নির্বাহী পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব ড. মো. আব্দুল মান্নান, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ, আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড ২০২১- এর চেয়ারম্যান এবং টেকনোহেভেন কোম্পানি লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও হাবিবুল্লাহ এন করিম। এতে অনলাইনে সংযুক্ত হন হংকং ব্লকচেইন সোসাইটির প্রেসিডেন্ট ড. লরেন্স মা।

সংবাদ সম্মেলনে পলক বলেন, বিশ্বে ব্লকচেইন প্রযুক্তির দ্রুত বিকাশ এবং প্রসারের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে প্রতি বছর আন্তর্জাতিকভাবে এই আয়োজনটি করা হয়। প্রতিযোগিতার প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘অনুপ্রেরণামূলক ক্ষমতায়ন এবং উদ্ভাবন’।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ এবং ২০৪১-কে এগিয়ে নিতে দেশ নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে নিয়মিতভাবে খাপ খাইয়ে নিচ্ছে। শুধুমাত্র তরুণ প্রতিভাই সংকটকে সুযোগে পরিণত করতে পারে। তরুণ প্রজন্মকে সব ডোমেইনে ব্লকচেন প্রযুক্তির প্রয়োগে সচেষ্ট হতে হবে। তরুণদের জন্য তাদের উদ্ভাবনী ধারণা শেয়ার করা এবং বিশ্বের কাছে নিজেদের প্রমাণ করতে এটি বিশাল সুযোগ। এটি একটি অন্যতম প্ল্যাটফর্ম যেখানে তরুণরা বিভিন্ন দেশের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে পারে।

আয়োজকরা জানান, ‘ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ ২০২১’- বিজয়ী ১২টি দল এই আয়োজনের আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অংশ নিচ্ছে। বিশ্বব্যাপী শিক্ষার্থীরা এই বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে।

বিজয়ীদের জন্য সর্বমোট ৪০ হাজার মার্কিন ডলারেরও বেশি মূল্যের পুরস্কারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। থিমভিত্তিক প্রজেক্টগুলো হচ্ছে- ডকুমেন্ট অথেনটিকেশন, ই-গভর্নেন্স, ফিনটেক, আইডেন্টিটি অ্যান্ড প্রাইভেসি, সাপ্লাই চেইন প্রোভেনেন্স, এডুটেক, হেলথটেক এবং প্রোটোটাইপ।

এই বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় মোট ১২টি দেশ অংশগ্রহণ করছে। দেশগুলো হচ্ছে- চীন, হংকং, ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইরান, ইন্দোনেশিয়া, নেদারল্যান্ড, নেপাল, মঙ্গোলিয়া, শ্রীলঙ্কা এবং বাংলাদেশ। ৫০ টিরও বেশি দল এতে অংশ নেবে। ইভেন্টটিতে যোগ দিতে https://ibcol2021.com/ এ ভিজিট করতে হবে।

এ বছর অন্যান্য আয়োজনের পাশাপাশি থাকছে মোট ৪টি সেমিনারের। এতে আলোচনার বিষয়গুলো হচ্ছে- সিবিডিসি এবং ক্রিপ্টোকারেন্সি, ই-গভর্নেন্স, আইডেন্টিটি অ্যান্ড প্রাইভেসি এবং ফিনটেক।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //