ছবি ও ভিডিও ব্যাকআপ ছাড়াও গুগল ফটোসের অসংখ্য ফিচার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

অনলাইনে ছবি ও ভিডিও জমা রাখা এবং অন্যদের সাথে শেয়ার করার মাধ্যম গুগল ফটোস। এটি ব্যবহার করে অনলাইনে ছবি আপলোড করে সংরক্ষণ করা যায়। তবে শুধু মাত্র ছবি ও ভিডিও ব্যাকআপ নেওয়া ছাড়াও আরো অসংখ্য চমৎকার ফিচার রয়েছে অ্যাপটিতে। 

চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক গুগল ফটোসের ফিচারসমুহ সম্পর্কে-

অটোমেটিক ব্যাকাপ

গুগল ফটোজ অ্যাপ ব্যবহার করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ছবি ও ভিডিও ব্যাকআপ রাখা যায়। এই ফিচার চালু থাকলে স্ট্যাবল ইন্টারনেট কানেকশন পেলে অটোমেটিক ছবি ও ভিডিও অনলাইন সার্ভারে জমা রাখে অ্যাপটি।

স্মার্ট সার্চ

গুগলের শক্তিশালী সার্চ টেকনোলজির দেখা মিলবে গুগল ফটোসে। যার ফলে যেকোনো কিওয়ার্ড ব্যবহার করে গুগল ফটোস অ্যাপে সার্চ করা যাবে। যেমন- ছবিতে খাবার আছে এমন ছবি খুঁজতে Food লিখে সার্চ করা যাবে। আবার যেকোনো স্থানে তোলা ছবিসমুহ খুঁজে পাওয়া যাবে উক্ত স্থানের নাম লিখে।

অ্যাসিস্ট্যান্ট

গুগল ফটোসের বিভিন্ন ফিচার ব্যবহার বেশ সহজ করে দেয় অ্যাপের অ্যাসিস্ট্যান্ট ফিচারটি। এটি ব্যবহার করে খুব সহজে কোলাজ বা এলবাম তৈরি করা যায়। এছাড়াও ডুপ্লিকেট ফাইল ডিলিট করা কিংবা স্টোরেজ খালি করার ক্ষেত্রেও বেশ কাজে আসে এই ফিচারটি।

গুগল লেন্স

গুগল লেন্স ফিচারটি ইন-বিল্ট রয়েছে গুগল ফটোস অ্যাপে। যার ফলে ফোনে থাকা সব ছবি এনালাইজ করা যাবে গুগল লেন্সের অসাধারণ সব ফিচার দ্বারা। লেন্সের ফিচার ব্যবহার করে ছবিতে থাকা অবজেক্ট খোঁজা যায়, টেক্সট কপি-পেস্ট ও ট্রান্সলেট করা যায়।

গুগল ফটোস এলবামস

এডভান্সড ইমেজ প্রসেসিং ও এনালাইসিসের মাধ্যমে গুগল ফটোসে ছবি ও ভিডিও পারসোনালাইজড এলবামে সাজানো থাকে। মানুষ, স্থান, বস্তু, কোলাজ, এনিমেশন বা মুভিসহ একাধিক এলবাম ক্যাটাগরিতে ছবিসমুহ সাজানো থাকে গুগল ফটোসে।

পার্টনার শেয়ারিং

পার্টনার শেয়ারিং ফিচারটি ব্যবহার করে আপনার গুগল ফটোসে থাকা ছবি আপনার বন্ধু বা পরিবারের সাথে শেয়ার করতে পারবেন। এই ফিচারটি ফটোস অ্যাপে প্রবেশ করে Photo Settings অপশনে ট্যাপ করে Partner Sharing এ গিয়ে ব্যবহার করা যাবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //