সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন বাড়ছে!

চলতি বছরেই ফের বাড়তে পারে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের তবে এবার বেতন স্কেলের কোনো সামগ্রিক পরিবর্তন হবে না। এর পরিবর্তে বিদ্যমান স্কেলে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত বেতন বাড়ানো হতে পারে। অর্থমন্ত্রণালয় সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।
সূত্র জানিয়েছে,মূল্যস্ফীতি সমন্বয়ের জন্য এই বেতন বাড়ানোর প্রস্তাব তৈরি করা হচ্ছে। তবে প্রস্তাবনাটি একেবারে প্রাথমিক পর্যায়ে আছে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এটি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রস্তাবনাটি কার্যকর করার জন্য মন্ত্রীসভার অনুমোদন প্রয়োজন হবে। মন্ত্রীসভা এ প্রস্তাব অনুমোদন করলে চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে বর্ধিত এই বেতন পাবেন দেশে ১৩ লাখ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি।
তবে গত বৃহস্পতিবার (৪ সেপ্টেম্বর) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। সেখানে সকল সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য চিকিৎসাসহ ৫ ধরনের অনুদান দ্বিগুণ করার পাশাপাশি বাড়ানো হয়েছে কল্যাণ তহবিলের মাসিক চাঁদার পরিমাণ ও যৌথ বীমার প্রিমিয়াম।
সূত্র জানায়, বর্তমানে মাসিক কল্যাণ ভাতার পরিমাণ ১ হাজার টাকা। এটি বাড়িয়ে করা হয়েছে ২ হাজার টাকা। সাধারণ চিকিৎসার জন্য অনুদান দেয়া হয় ২০ হাজার টাকা। এখন থেকে দেয়া হবে ৪০ হাজার টাকা। যৌথ বীমার এককালীন অনুদান দেয়া হতো ১ লাখ টাকা। সেটি বাড়িয়ে করা হয়েছে ২ লাখ টাকা।
এ ছাড়া ১ লাখ টাকা থেকে ২ লাখ করা হয়েছে জটিল ও দুরারোগ্য ব্যাধির চিকিৎসা অনুদান। দাফন/অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া বাবদ সহায়তার পরিমাণ ৫ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা করা হয়েছে।
অপরদিকে কল্যাণ তহবিলের মাসিক চাঁদার পরিমাণ মূল বেতনের সর্বোচ্চ ১ শতাংশ ও সর্বোচ্চ ৫০ টাকার পরিবর্তে করা হয়েছে সর্বোচ্চ ১৫০ টাকা। যৌথ বীমার মাসিক সর্বোচ্চ প্রিমিয়াম মূল বেতনের ০.৭০ শতাংশের (সর্বোচ্চ ৪০ টাকা) পরিবর্তে এখন থেকে দিতে হবে সর্বোচ্চ ১০০ টাকা।
উল্লেখ, সর্বশেষ ২০১৫ সালে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের বেতন বাড়ানো হয়েছিল। সে সময় তাদের বেতন বেড়েছিল সর্বনিম্ন ৯১ শতাংশ থেকে সর্বোচ্চ ১০১ শতাংশ পর্যন্ত। মূল বেতনের পাশাপাশি আবাসান,চিকিৎসা ও উৎসব ভাতাসহ অন্যান্য ভাতাও বাড়ানো হয়েছিল।তবে বর্ধিত ভাতা কার্যকর হয় ২০১৬ সালের ১ জুলাই।
বর্তমানে একজন সদ্য বিসিএস উত্তীর্ণ কর্মকর্তার মূল বেতন ২২ হাজার টাকা। এর সঙ্গে প্রযোজ্য আবাসান ভাতাসহ অন্যান্য ভাতা পেয়ে থাকেন।২০১৫ সালে নতুন বেতন স্কেল কার্যকর হওয়ার আগে তাদের মূল বেতন ছিল ১১ হাজার টাকা। বর্তমানে বিদ্যমান বেতন স্কেল অনুসারে সর্বোচ্চ মূল বেতন ৭৮ হাজার টাকা। আর সর্বনিম্ন মূল বেতন ৮২৫০ টাকা।
বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. ফরাস উদ্দিনকে প্রধান করে সর্বশেষ পে কমিশন গঠন করা হয়েছিল। ওই কমিশনের সুপারিশ ছিল, পরবর্তীতে আর কোনো কমিশন গঠন না করে বিদ্যমান স্কেলের সঙ্গে মূল্যস্ফীতিকে সমন্বয় করে নিয়মিত বেতন বাড়ানোর। এর আলোকেই সরকার মূল্যস্ফীতি সমন্বয়ের বিবেচনায় রেখে বেতন-ভাতা বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে।
বর্তমান বাজেটে বেতন-ভাতা বাবদ বাজেটে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৫৮ হাজার ৫১২ কোটি টাকা।২০১৩-১৪ অর্থবছরের বাজেটে এই খাতে বরাদ্দ ছিল ২৮ হাজার ৭০৯ কোটি টাকা।


মন্তব্য করুন

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh