টিসিবির দোকানে লুটপাটের মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

টিসিবির দোকানে হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার পলাশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শওকত আলীকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে আদিতমারী বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলার বাদী টিসিবি ডিলার নুরবক্ত মিয়া পলাশী ইউনিয়নের মদনপুর ফকিরটারী গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে। তিনি স্থানীয় নামুড়ি বাজারের ওষুধ বিক্রেতা ও টিসিবি পণ্যের ডিলার।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ঢাকার এক এজেন্সির মাধ্যমে সৌদিতে কাজে যান পলাশী ইউনিয়নের নামুড়ি বাজারের টিসিবি ডিলার নুরবক্তের ভাই নূরে আলম। পরে একই এজেন্সির মাধ্যমে উপজেলার পলাশী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলীর নাতিও সৌদিতে যান। নুরবক্তের ভাইয়ের কাগজ সঠিক থাকলেও চেয়ারম্যানের নাতির কাগজ ঠিক না থাকায় তিনি সেখানে অবরুদ্ধ রয়েছেন।

তার নাতিকে সৌদিতে বিক্রি করা হয়েছে মর্মে অভিযোগ তুলে গত ৮ জুন সন্ধ্যায় ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী দলবল নিয়ে নুরবক্তের টিসিবির দোকানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। এতে বাধা দিলে ডিলার নুরবক্তকে এলোপাতারি মারধর করে। এ সময় তাকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে তার ভাই নূর হোসেন ও প্রতিবেশী আনারুল গুরুতর আহত হন। এ সময় দোকানে থাকা টিসিবির পণ্য বিক্রির দুই লাখ টাকা ছিনিয়ে নেন হামলাকারীরা। বিষয়টি জানতে পেয়ে স্থানীয়রা ছুটে এলে দলবল নিয়ে পালিয়ে যান চেয়ারম্যান শওকত আলী। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় বিচার চেয়ে টিসিবি ডিলার নুরবক্ত বাদী হয়ে পরদিন ৯ জুন ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলীকে প্রধান আসামি করে ১০ জনের নামে আদিতমারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় বুধবার আদিতমারী বাজার এলাকা থেকে প্রধান আসামি ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলীকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ।

আদিতমারী থানার ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, দোকানে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh