সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের সমাপ্তি

একাদশ জাতীয় সংসদের শীতকালীন অধিবেশন আজ শেষ হয়েছে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের অধিবেশন সমাপ্তি সম্পর্কিত ঘোষণা পাঠের মাধ্যমে অধিবেশন সমাপ্ত ঘোষণা করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

এর আগে আজ সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সমাপনী ভাষণ দেন। এছাড়া বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ সমাপনী বক্তব্য দেন।

এ অধিবেশন ছিল একাদশ জাতীয় সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশন। সংসদের প্রথা ও সংবিধান অনুযায়ী অধিবেশনের প্রথম কার্যদিবস গত ৯ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ভাষণ দেন। ভাষণে আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর ২৭ কার্যদিবসে সংসদ নেতা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকার ও বিরোধীদলের ২২৭ জন ৫৪ ঘণ্টা ২৪ মিনিট আলোচনা করেন। আলোচনা শেষে আজ ১৮ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার সর্বসম্মতভাবে ধন্যবাদ প্রস্তাব সংসদে গৃহীত হয়।

এছাড়া প্রথম অধিবেশন গত ৯ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়ে আজ ১৮ মার্চ পর্যন্ত মোট ২৮ কার্যদিবস চলে। এ অধিবেশনে ৭টি সরকারি বিল পাস করা হয়। ৭১ বিধিতে ২৩৫টি নোটিশের মধ্যে ১২টি গৃহীত ও ৮টির ওপর আলোচনা হয়। ৭১ক বিধিতে ২ মিনিটের আলোচিত নোটিশের সংখ্যা ৬০টি।

এছাড়া এ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর উত্তর দানের জন্য ১২৪টি প্রশ্নের মধ্যে ৫৫টির তিনি উত্তর দেন। আর মন্ত্রীদের জন্য ২ হাজার ৯০২টি প্রশ্নের মধ্যে ২ হাজার ৩৭৬ টির উত্তর দেয়া হয়।

স্পিকার তার সমাপনী ভাষণে মহান ভাষার মাসে ভাষা শহীদদের গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তিনি বলেন, মহান শহীদদের ত্যাগে ভাস্বর একুশ বাংলা সংস্কৃতির নতুন চেতনা সঞ্চারকারী ভূমিকায় অবতীর্ণ বাংলা সংস্কৃতির বিভিন্ন ক্ষেত্রে একুশের চেতনা এক অপরিমেয় শক্তি, প্রাণের দীপ্ত জাগরণ।

তিনি বলেন, সম্প্রতি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বিশ্বে দেশের মর্যাদা ও সুনাম অনেক বৃদ্ধি করেছে। তিনি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্ব ক্রিকেট বিজয়ী ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান।

তিনি বলেন, ‘২০২০ সাল আমাদের জাতীয় জীবনে অত্যন্ত গুরুত্ববহ। এ বছর আমরা সমগ্র জাতি আননদমুখর পরিবেশে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী মুজিববর্ষ পালন করছি। এ মুজিববর্ষ ২০২০ উদযাপন নতুন প্রজন্মকে জাতির পিতার আদর্শকে সমুন্নত রাখতে অনুপ্রাণিত করবে, দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হয়ে দেশসেবায় আত্মনিয়োগ করতে ভবিষ্যৎ তরুণদেরকে উৎসাহিত করবে।’ তিনি মুজিববর্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান।

তিনি বলেন, এ উপলক্ষ্যে আগামী ১৯ মার্চ জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় শিশু মেলার আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া আগামী ২২ ও ২৩ মার্চ জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশন বসবে। এ অধিবেশনে বিশ্বখ্যাত ব্যক্তিত্বদের আমন্ত্রণ জানানো হবে।

স্পিকার এই অধিবেশনে সরকার ও বিরোধীদল নির্বিশেষে সবাইকে কার্যকর ভূমিকা রাখার জন্য ধন্যবাদ জানান। তিনি গণতন্ত্রের মূল চালিকা শক্তি এ জাতীয় সংসদকে আরো অর্থবহ করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। পরমতসহিষ্ণুতা, আইনের শাসন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জনগণের ক্ষমতাকে জনগণের স্বার্থে ব্যবহার করে বিশ্বের মাঝে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদেকে গণতন্ত্রের এক অনুকরণীয় মডেল হিসাবে প্রতিষ্ঠা করারও আহ্বান জানান।

স্পিকার সংসদ অধিবেশন পরিচালনায় সহযোগিতা করায় সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সংসদ উপনেতা, মন্ত্রী সভার সদস্যবৃন্দ, চিফ হুইপসহ হুইপগণ, বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ, সব সংসদ সদস্য, ডেপুটি স্পিকার ও সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, মিডিয়া কর্মীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

সমাপনী ভাষণের পর স্পিকার একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন সমাপ্তি সংক্রান্ত রাষ্ট্রপতির আদেশ পাঠ করেন।-বাসস

মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

<