সওয়াল জবাব

ঘুষখোরের বাড়িতে কী দাওয়াত খাওয়া যাবে?

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

প্রশ্ন: আমার একজন আত্মীয় একটি সরকারি অফিসে চাকরি করেন। তার অফিসে বিপুল পরিমাণ ঘুষ লেনদেন হয় বলে সমাজে প্রচার রয়েছে। এলাকার সবাই নিশ্চিতভাবে জানেন যে, তিনিও ঘুষ গ্রহণ করেন। সরাসরি স্বীকার না করলেও তিনি কখনো ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ অস্বীকার করেন না। এখন তার বাসায় কি আমাদের দাওয়াত খাওয়া জায়েজ হবে? তিনি দাওয়াত দিলে আমরা কী করব?
-নাজিরুল ইসলাম শাওন, জামালপুর।

উত্তর: প্রশ্নোক্ত অবস্থায় দাওয়াতকারীর মূল চাকরি যদি হালাল হয় এবং তার বেশির ভাগ উপার্জন হালাল হয় তবে আপনাদের জন্য তার বাসার দাওয়াত গ্রহণ করা এবং তার খাবার খাওয়া জায়েজ হবে। তদ্রুপ হালাল আয় থেকেই দাওয়াতের ব্যবস্থা করেছে বলে নিশ্চিত হলে তখনো দাওয়াত গ্রহণ করা যাবে। তবে হারাম অর্থ দ্বারা দাওয়াতের ব্যবস্থা করেছে জানা গেলে কোনো ক্ষেত্রেই দাওয়াত গ্রহণ করা জায়েজ হবে না। এমন অবৈধ উপার্জনকারী দাওয়াত দিলে কৌশলে এড়িয়ে যাওয়াই উত্তম। 
তবে সমাজের কেউ কেউ সরাসরি দাওয়াত প্রত্যাখ্যান করেন এবং তাকে আঘাত করে কথা বলেন, এটা ঠিক নয়। বরং তাকে অবৈধ উপার্জন থেকে ফিরিয়ে আনার জন্য সুন্দর ও যুক্তিপূর্ণ ভাষায় বোঝানোর চেষ্টা করা উচিত।

সূত্র: সুরা: নাহল, আয়াত: ১২৫, ফাতাওয়া হিন্দিয়া: ৫/৩৪৩; আলমুহিতুল বোরহানি: ৮/৭৩; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া: ১৮/১৭৫


মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh