ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজ

টাইগারদের আফগান পরীক্ষা আজ

টাইগারদের আজ আফগানিস্তান পরীক্ষা। এর আগে গতকাল মিরপুরে কৌশল ঠিক করে নিতে ব্যস্ত কোচ-অধিনায়ক। ছবি: সংগৃহীত

টাইগারদের আজ আফগানিস্তান পরীক্ষা। এর আগে গতকাল মিরপুরে কৌশল ঠিক করে নিতে ব্যস্ত কোচ-অধিনায়ক। ছবি: সংগৃহীত

শুক্রবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু করেছে বাংলাদেশ। অনেক দিন পর পাওয়া জয়টা স্বস্তি এনে দিয়েছে স্বাগতিকদের মাঝে। ত্রিদেশীয় সিরিজে আজ রবিবার আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়।

বিশ্বকাপের শেষ ভাগ থেকেই মাঠের ক্রিকেটে ধুঁকছিল বাংলাদেশ। পরাজয়ের বৃত্তে ঘুরপাক খাচ্ছিল টাইগাররা। টানা পাঁচ ওয়ানডে, এক টেস্ট হেরেছিল বাংলাদেশ। অবশেষে গত শুক্রবার ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে শৃঙ্খল ভেঙেছে বাংলাদেশ দল। এই জয় স্বস্তির বাতাস বইয়ে দিয়েছে গোটা দলে।

তবে টি-২০ তে বাংলাদেশের চেয়ে অনেক শক্তিশালী দল আফগানরা। পরিসংখ্যান অন্তত আফগানদের পক্ষেই থাকছে। এই ফরম্যাটে দুই দলের সাক্ষাৎ হয়েছে চার বার। যার মধ্যে তিনবারই জিতেছে আফগানিস্তান। গত বছর দেরাদুনে তিন ম্যাচের সিরিজে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করেছিল তারা। বাংলাদেশ একবারই হারাতে পেরেছিল আফগানদের। সেটা ২০১৪ টি-২০ বিশ্বকাপে এই মিরপুরেই।  এগিয়ে আফগানরা। টি-২০ র্র‌্যাংকিংয়ে ৭ নম্বরে অবস্থান করছে রশিদ খানের দল। বাংলাদেশ রয়েছে ১০ নম্বরে।

তবে ঘরের মাঠে আফগানদের হারানোর ক্ষমতা আছে বাংলাদেশের, এমনটাই বিশ্বাস করেন বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ নেইল ম্যাকেঞ্জি। গতকাল শনিবার অনুশীলন শেষে তিনি বলেছেন, আজ জয়ের জন্যই খেলতে নামবে বাংলাদেশ। আফগান স্পিনারদের খেলার পরিকল্পনাও করেছে টাইগাররা।

আফগানের স্পিন আক্রমণই বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে বড়ো চ্যালেঞ্জ। রশিদ খান, মুজিব ও নবীকে নিয়ে গড়া স্পিন আক্রমণ অতীতেও বাংলাদেশকে পরীক্ষায় ফেলেছিল। তবে রশিদ-নবীদের সামাল দিতে প্রস্তুত আছে বাংলাদেশ।

দর্শকসহ মিডিয়াকে সাকিবদের পাশে থাকার অনুরোধ করেছেন ম্যাকেঞ্জি। অনেক সময় নিজেরাই নিজেদের শত্রু হয়ে যাই এবং দলের ওপর বেশি চাপ দিয়ে ফেলি বলে মন্তব্য করেছেন এ প্রোটিয়া কোচ।

তিনি বলেন, আমি মনে করি মাঝে মাঝে আমরাই আমাদের সব থেকে বাজে শত্রু হয়ে যাই। নিজেদের ওপর অনেক বেশি চাপ নিয়ে ফেলি। নিজেদের ওপর বিশ্বাস রাখাটা খুব জরুরি। দলের সবাইকে সবার ওপর আস্থা রাখতে হবে, দর্শক এবং মিডিয়াকেও খেলোয়াড়দের ওপর এ বিশ্বাসটা রাখতে হবে। সময় দিতে হবে, তারা যন্ত্র না, মানুষ।


মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh