মাছের রাজার বর্ষবরণ

হলুদ মরিচ লবণ মাখা-গায়গতরে তেজ
চুলোর পাশে বসে ছিল ইলিশ মাছের লেজ।
মাছের রাজার লেজ বলে সে রাজার মতোই দামি,

বলল সে লেজ রাঁধুনিকে, ‘শোনো বলি আমি
ইলিশ মাছের সবই মজার-পেটি, গাদা-লেজও,
তাই আমাকে আদর করে ডুবো তেলে ভেজো।
কড়া ভাজা হলে আমি শান্তি পাব জানে।’
তেলের কত দাম উঠেছে ইলিশ কি আর জানে?
রুটির তাওয়ায় হচ্ছে পোলাও-ভুনা এবং ভাজা,
চিৎ হয়ে সেই তাওয়ার পরেই পড়ল মাছের রাজা।
ছ্যাঁৎ করে তাই উঠল-মানে রেগে গেছে-রেগে,
ভাজতে গেলে যাচ্ছে কেবল তাওয়ার সাথে লেগে। 

হলো না সে মচমচে আর-দুঃখ পরান জুড়ে,
কেঠো খোলায় এপিঠ ওপিঠ দুপিঠ গেছে পুড়ে।
খুন্তি দিয়ে তোলা হলো সাবধানতার সাথে,
পরিবেশন করা হলো পান্তা ভাতের পাতে।
থালের পরে ঠাঁই পাওয়া দায়-চালের অনেক প্রাইস,
পান্তা ভাতেও সম্ভবত কম পড়েছে রাইস।
ছ্যাঁৎ করে লেজ উঠল আবার তারপরে সে নিথর,
তলিয়ে গেল মাছের রাজা পান্তা ভাতের ভিতর।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //