ICT Division

ফারাক্কা বাঁধ ইস্যুতে মোদিকে মমতার চিঠি

হঠাৎ করেই ভাঙন বাড়ছে কলকাতায় গঙ্গা নদীতে। ফারাক্কা বাঁধের কারণেই এ নদী ভাঙনের ঘটনা ঘটছে। এর ফলে বিপদের মুখে পড়েছে প্রদেশের কয়েকটি জেলার মানুষ। এ অবস্থায় সমস্যার সমাধান চেয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মূলত ফারাক্কা বাঁধের কারণে মুর্শিদাবাদ, মালদহ জেলার মানুষ বিপদের মুখে পড়েছেন। সমস্যাটি অবশ্য দীর্ঘদিনের। এ নিয়ে আগেও বহুবার ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে জানিয়েছিল রাজ্য সরকার। তাতে ‘লোক দেখানো কাজ’ হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন মমতা।

নরেন্দ্র মোদিকে দেওয়া চিঠিতে মমতা লিখেছেন, গঙ্গার ৪০ হাজার কিউসেক পানি ভাগীরথী ও হুগলি নদীতে পাঠাতে ফারাক্কা বাঁধ তৈরি করা হয়। ফলে নদীর দুই ধারে প্রচুর পরিমাণ পলি জমছে। এ কারণেই ভাঙছে নদীর পাড়। ফলে গঙ্গা পাড়ের মানুষ বিপদের মুখে পড়েছে। এর জন্য স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন।

এক্ষেত্রে ফারাক্কার পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে কেন্দ্রকে অনুরোধ জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। ফারাক্কা বাঁধ প্রকল্পের কর্মকর্তাদের পশ্চিমবঙ্গ ও বিহার সরকারের আলোচনা করে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতেও অনুরোধ করা হয়েছে।

মমতার আশঙ্কা গঙ্গা নদীর ওপর বাংলাদেশে একটি বাঁধ তৈরি করা হচ্ছে। এর কারণেও পশ্চিমবঙ্গ ও বিহারের মানুষের অসুবিধা হতে পারে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে ওই প্রকল্প পুনর্মূল্যায়ন করার অনুরোধ করেছেন তিনি।

চিঠিতে মমতার অভিযোগ, ২০১৫ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে একাধিকবার নদী পাড় ভাঙন সমস্যার সমাধানের জন্য কেন্দ্রকে জানানো হয়েছে। কিন্তু তারপর কেন্দ্রের যাবতীয় পদক্ষেপ ছিল লোক দেখানো।

তার দাবি, কেন্দ্র না করলেও রাজ্য সরকার স্বতন্ত্রভাবে নদীর পাড় সংস্কারে উদ্যোগ নিয়েছে। ক্ষয়প্রবণ এলাকা চিহ্নিত করে ১৬৮ কোটি টাকার কাজ শুরু হয়েছে।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //