সিঙ্গাপুরে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে বাংলাদেশি গ্রেফতার

আহমেদ ফয়সল

আহমেদ ফয়সল

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে সিঙ্গাপুরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আহমেদ ফয়সল নামের এক বাংলাদেশি নির্মাণশ্রমিককে গ্রেফতার করেছে।

গত ২ নভেম্বর তাকে গ্রেফতার করা হলেও এ বিষয়ে গতকাল মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) সিঙ্গাপুরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৬ বছর বয়সী আহমেদ ফয়সালকে ইন্টারনাল সিকিউরিটি আইনের অধীনে সন্ত্রাসী কার্যক্রমের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে সিঙ্গাপুরে ফয়সালের কোনো নাশকতা করার পরিকল্পনা ছিল কিনা, তদন্তকারীরা এমন কোনো তথ্য খুঁজে পাননি।

অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিভাগের প্রাথমিক তদন্তে দেখা গেছে, তিনি ধর্মীয় চরমপন্থায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সহিংস কর্মকাণ্ড ঘটাতে চেয়েছিলেন। ইউরোপে সাম্প্রতিক সহিংসতার প্রেক্ষাপটে সিঙ্গাপুরে সন্দেহভাজন ৩৭ জনের ওপর তদন্ত চালানো হয়। এতে দেখা যায়, ফয়সাল বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর হামলা ও ভারতের কাশ্মীরে গিয়ে লড়াই করার পরিকল্পনা করছিলেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০১৭ সাল থেকে সিঙ্গাপুরের একটি কন্সট্রাকশন কোম্পানিতে চাকরি করে আসছিল ফয়সাল। ২০১৮ থেকে আইএসের মাধ্যমে প্রভাবিত হয়ে উগ্রবাদী হয়ে পড়ে ওই ব্যক্তি। আইএসের ইসলামিক খেলাফত প্রতিষ্ঠার প্রতি আগ্রহী হয়ে পড়ার কারণে সিরিয়া যেতে আগ্রহী ছিলেন তিনি। ফয়সালের বিশ্বাস তিনি যদি মারা যান তবে শহীদ হয়ে যাবেন।

সিঙ্গাপুর কর্তৃপক্ষ জানায়, ২০১৯ সালের মাঝামাঝি ফয়সাল হায়াত তাহরির আল-সাম নামে উগ্রবাদী সংস্থার প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়েন এবং সিরিয়াভিত্তিক ওই সংস্থাকে আর্থিক সাহায্য প্রদান করেন। সামাজিক গণমাধ্যমে মিথ্যা অ্যাকাউন্ট খুলে সহিংসতা ছড়িয়ে দেয়ার জন্য মিথ্যা প্রচারণা চালাতেন ফয়সাল। সহিংসতার জন্য ভাঁজ করে রাখা যায় এমন সব ছোরাও সংগ্রহ করেন তিনি। সিঙ্গাপুরের কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদে দেশে ফিরে এসব ছোরা দিয়ে সহিংস হামলার পরিকল্পনার কথা স্বীকার করেন তিনি।

এছাড়া তিনি আল-কায়দা ও সোমালিয়াভিত্তিক আল-শাহবাবের প্রতিও সহানুভূতিশীল। ফয়সাল বিশ্বাস করেন, মুসলিমদের দায়িত্ব হচ্ছে নির্যাতিতদের সাহায্য করতে সহিংস জিহাদ করা। এজন্য তিনি কাশ্মীরে যেতে চেয়েছিলেন। নিজেকে প্রস্তুত করার জন্য তিনি অনলাইনে সহিংস ভিডিও দেখতেন।

এর আগে সিঙ্গাপুর কর্তৃপক্ষ ১৫ জন বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করে দেশে ফেরত পাঠিয়েছিল।

এ বিষয়ে সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্র জানায়, বিষয়টি জানার পর তারা ঢাকায় রিপোর্ট পাঠিয়েছেন। তবে দূতাবাস কর্মকর্তারা এখনো ফয়সালের সাথে দেখা করতে পারেননি।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh