মালয়েশিয়ায় ভিসা জালিয়াতি : চার বাংলাদেশিসহ গ্রেপ্তার ৬

মালয়েশিয়ায় অভিবাসী কর্মীদের বৈধতা দেওয়ার নামে ভিসা জালিয়াতি ও অবৈধভাবে অর্থ উপার্জনের অভিযোগে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। এদের মধ্যে চারজন বাংলাদেশি। তবে তদন্তের স্বার্থে গ্রেপ্তারকৃতদের নাম প্রকাশ করেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

গতকাল শুক্রবার (১০ জুন) সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক সেরি খায়রুল দাজাইমি দাউদ।

এর আগে গত বুধবার (৮ জুন) কুয়ালালামপুরের জালান লুমুত ও সেলাঙ্গরের আমপাংয়ের পান্ডান কাহায়ায় অভিযান চালিয়ে দুই বাংলাদেশি ও তাদের মালেশিয়ান স্ত্রী এবং আরো দুই সহযোগী বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মালয়েশিয়ায় চলমান রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম (আরটিকে) থেকে প্রতারণামূলক আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে এই সিন্ডিকেট ২০ লাখের বেশি মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত উপার্জন করেছে বলে ধারণা করছে অভিবাসন বিভাগ।

তদন্ত করে অভিবাসন বিভাগ জানতে পেরেছে, মালয়েশিয়ার স্থায়ী বাসিন্দা (মাইপিআর মর্যাদাধারী) ৩৬ বছর বয়সী একজন বাংলাদেশি এই সিন্ডিকেটের মূল পরিকল্পক ও পরিচালনাকারী। তিনি মালয়েশিয়ান নারীকে বিয়ে করার পর ২০১৫ সালে স্থায়ী বাসিন্দা হয়েছিলেন। তার নেতৃত্বে সিন্ডিকেটটি কমপক্ষে দুই বছর ধরে সক্রিয় রয়েছে।

অভিযানে বাংলাদেশের ৪৫৭টি, ইন্দোনেশিয়ার আটটি, ভারতের আটটি, পাকিস্তানের আটটি, মিয়ানমারের ছয়টি ও নেপালের একটিসহ মোট ৪৮৮টি পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে। এছাড়াও জব্দ করা হয়েছে ১২টি কোম্পানির সিল, দুটি কম্পিউটারের সেট ও নগদ ৩৮ হাজার ৩০৮ রিঙ্গিত, যা আরটিকে কার্যক্রমে ব্যবহার করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তদন্তে জানা গেছে, সিন্ডিকেট প্রতিটি অভিবাসীকর্মীকে ৩ হাজার ৫০০ রিঙ্গিত ও ৪ হাজার ২০০ রিঙ্গিতের মধ্যে এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে বিভিন্ন সেক্টরের জন্য একটি টেম্পোরারি ওয়ার্কিং ভিজিট পাস (পিএলকেএস) পাওয়ার ব্যবস্থা করেছিল।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //