ICT Division

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশিদের জটিলতা নিরসনের দাবি রাষ্ট্রপতির কাছে

যুক্তরাজ্যে বসবাসরত ব্রিটিশ বাংলাদেশিরা বাংলাদেশি সরকারি পরিষেবা গ্রহণে এনআইডির বৈধতা, নো ভিসা এবং পাসপোর্ট ইস্যু নিয়ে জটিলতা নিরসনসহ কয়েকটি দাবি পেশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে।

গত বুধবার (১৬ নভেম্বর) লন্ডনের পার্কলেন হোটেলে ‘যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ ইউনিট’ এর ব্যানারে প্রবাসীদের দাবি সম্বলিত একটি আবেদন রাষ্ট্রপতির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের বাংলাদেশি পাসপোর্ট ধারণ, বাংলাদেশি ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা নিরসন, বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) এবং বাংলাদেশে থাকা অর্থ-সম্পদের রক্ষণাবেক্ষণ বা তদারকির জন্য কাউকে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি দেওয়ার ক্ষমতা প্রদান।

যুক্তরাজ্য শাখা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ বলেন, ব্রিটেনে বসবাসরত ব্রিটিশ বাংলাদেশিদের সংখ্যা প্রায় এক মিলিয়ন। স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশে ব্রিটেন প্রবাসীরা পাওয়ার অব অ্যাটর্নি সম্পাদনে আইডি হিসেবে বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করে আসছেন। সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশ হাইকমিশন থেকে শুধু বৈধ বাংলাদেশিদেরই বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করার ঘোষণা দিয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছেন অনেকেই। আর বৈধ বাংলাদেশি পাসপোর্টের অভাবে অনেকের মধ্যেই এখন সম্পত্তি হারানোর ভয় ও শঙ্কা তৈরি হচ্ছে।

দাবিগুলো সম্পর্কে সংগঠনের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ব্যারিস্টার আবুল কালাম চৌধুরী বলেন, এই জটিলতার কারণে একদিকে তারা বাংলাদেশে গিয়ে এনআইডির অভাবে সম্পত্তি হস্তান্তরের কাজ করতে পারছেন না, অন্যদিকে বৈধ পাসপোর্টের অভাবে বিদেশ থেকে যেটুকু করা যেত সেটুকু এখন বন্ধ হয়ে গেছে। সমস্যাগুলোর প্রতিকারের জন্য সরকারকে শিগগির কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানাই।

এ সময় যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিম উপস্থিত ছিলেন। অন্যদের মধ্যে ছিলেন আওয়ামী লীগের যুক্তরাজ্য শাখার সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আহাদ চৌধুরী প্রমুখ।

সূত্র: বাসস

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //