উত্তর কোরিয়ার অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে ব্যর্থতা স্বীকার কিম জং উনের

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন স্বীকার করেছেন যে, প্রায় কোনো ক্ষেত্রেই অর্থনৈতিক লক্ষ্যে পৌঁছনো সম্ভব হয়নি।

পাঁচ বছর পর গতকাল মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) পার্টি কংগ্রেস শুরু হয়েছে উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন দলের। সেখানেই উন এই বিরল স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। 

তিনি বলেন, ২০১৬ সালে যে অর্থনৈতিক লক্ষ্য সামনে রাখা হয়েছিল, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তা পূরণ করা যায়নি। এটা খুবই কষ্টকর শিক্ষা ও এর পুনরাবৃত্তি হওয়া উচিত নয়।

অর্থনৈতিক লক্ষ্যপূরণে ব্যর্থতা ছাড়া বিভিন্ন ক্ষেত্রে সাফল্য দাবি করে উনের স্বীকারোক্তি, এর ফলে আমাদের জাতীয় অর্থনীতির প্রবৃদ্ধিতে দেরি হবে। আর এটা খুবই উদ্বেগের বিষয়।

ক্ষমতাসীন দল ওয়ার্কার্স পার্টির কংগ্রেসে কয়েক হাজার প্রতিনিধি যোগ দিয়েছেন। এই পার্টি কংগ্রেসে আগামী পাঁচ বছরের জন্য উন্নয়ন পরিকল্পনা পেশ করা হবে। উন এখানে নেতৃত্বে পরিবর্তনের কথাও ঘোষণা করতে পারেন। তার বোন কিম ইয়ো জং-কে নতুন ভূমিকায় দেখা যেতে পারে। এমনকী তার হাতে বাজেট, অডিট ও সংগঠনের দায়িত্ব দেয়া হতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এই পার্টি কংগ্রেস থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ইলেক্ট জো বাইডেনকেও একটা বার্তা দিতে পারেন কিম। উত্তর কোরিয়ার প্রত্যাশা, ট্রাম্প যে নীতি নিয়ে চলছিলেন, বাইডেন এসে তার পরিবর্তন ঘটাবেন।

গত বছর উত্তর কোরিয়া তাদের আগের পঞ্চবার্ষিকী আর্থিক পরিকল্পনা চুপচাপ বাতিল করে দেয়। কারণ ততদিনে পরিস্কার, উত্তর কোরিয়ার পক্ষে আর্থিক লক্ষ্য পূরণ করা সম্ভব হবে না। এরপর করোনার কারণে পরিস্থিতি আরো খারাপ হয়েছে। উত্তর কোরিয়া তাদের সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে। বাইরের বিশ্বের সাথে আর যোগ রাখছে না। উত্তর কোরিয়ার দাবি, তাদের দেশে একজনও করোনা আক্রান্ত নেই। -ডয়চে ভেলে

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh