চীনে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতের মৃত্যু

চীনে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতে ইউ মিও থান্ট পের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রবিবার (৭ আগস্ট) দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় চীনা শহর কুনমিংয়ে তার মৃত্যু হয়।

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এবং বেইজিংয়ে কূটনৈতিক সূত্রের বরাতে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

আজ সোমবার (৮ আগস্ট) মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে ইউ মিও থান্ট পের মৃত্যুতে শোক বার্তা প্রকাশ করেছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তবে সেখানে তার মৃত্যুর কারণ জানানো হয়নি।

এদিকে বেইজিংয়ে অবস্থানরত বেশ কয়েকজন কূটনীতিক এবং মিয়ানমারের একটি চীনা ভাষার গণমাধ্যম জানিয়েছে, ইউ মিও থান্ট পে সম্ভবত হার্ট অ্যাটাকের কারণে মারা গেছেন।

স্থানীয় একটি গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত শনিবার মিয়ানমার সীমান্তের কাছে চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইউনান প্রদেশে স্থানীয় কর্মকর্তাদের সাথে শেষ বারের মতো তাকে দেখা গিয়েছিল।

তবে তার মৃত্যু সম্পর্কে চীনে অবস্থিত মিয়ানমারের দূতাবাসের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

ইউ মিও থান্ট পে ২০১৯ সালে চীনে অবস্থিত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত হন। ২০২১ এর ফেব্রুয়ারিতে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করার পরও তিনি নিজ পদে বহাল ছিলেন।

গত এক বছরে চীনে এ নিয়ে চারজন রাষ্ট্রদূতের মৃত্যু হলো। গত সেপ্টেম্বরে দেশটিতে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত ইয়ান হেকারের (৫৪) মৃত্যু হয়। তার আগে গত ফেব্রুয়ারিতে বেইজিংয়ের শীতকালীন অলিম্পিক ভ্যেনু পরিদর্শন করে আসার কিছুক্ষণের মধ্যেই ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত সেরহি কামিশেভ (৬৫) মারা যান। এছাড়া গত এপ্রিলে চীনের পূর্বাঞ্চলীয় আনহুই প্রদেশে কোয়ারেন্টাইনে থাকা অবস্থায় ফিলিপাইনের রাষ্ট্রদূত হোসে সান্তিয়াগোর (৭৪) মৃত্যু হয়।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //