যুক্তরাজ্যফেরত যাত্রীদের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন ৪ দিন

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

যুক্তরাজ্যফেরত যাত্রীদের এবার ১৪ দিনের বদলে চারদিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না। আগামীকাল শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) এ কোয়ারেন্টিন কার্যকর হবে। 

স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখা থেকে গতকাল বুধবার (১৩ জানুয়ারি) পাঠানো এক পত্রে এমন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

চারদিন কোয়ারেন্টিন শেষে তাদের করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। এতে ফলাফল নেগেটিভ এলে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন থেকে ১০ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হবে। 

আর ফলাফল পজিটিভ এলে সরকার নির্ধারিত আইসোলেশন সেন্টারে ভর্তি করা হবে এবং খরচ যাত্রীদের বহন করতে হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেটের সিভিল সার্জন প্রেমানন্দ মণ্ডল বলেন, ১৫ জানুয়ারির পর থেকে যারা যুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফিরবেন, তাদের ক্ষেত্রে এমন নির্দেশনার আলোকে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সেভাবেই পরবর্তী কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালকের স্বাক্ষর করা এক নির্দেশনাপত্র আজ বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সিলেটে এসে পৌঁছায়। ওই নির্দেশনাপত্রে যুক্তরাজ্য থেকে আসা সব যাত্রীকে সরকার নির্ধারিত হোটেলে চারদিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে রাখার ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে। আগে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন ছিল ১৪ দিনের।

বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন পালনকালে সব খরচ যুক্তরাজ্যফেরত যাত্রীরা বহন করবেন। সরকার নির্ধারিত হোটেলগুলোয় কোয়ারেন্টিন পালনে যুক্তরাজ্যফেরত যাত্রীরা অপারগতা প্রকাশ করলে সরকারিভাবে নির্মিত ক্যাম্পে কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা নেয়া হবে। এতে হাসপাতালের যাবতীয় খরচ যুক্তরাজ্যফেরত যাত্রীদের বহন করতে হবে।

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের নতুন ধরনের (স্ট্রেইন) সংক্রমণ শুরুর পর বিশ্বের বিভিন্ন দেশ দেশটির সাথে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তবে বাংলাদেশ যুক্তরাজ্যে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি।

তবে ১ জানুয়ারি থেকে যুক্তরাজ্যফেরত সব যাত্রীকে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়। সেই নির্দেশনায় এখন কিছুটা পরিবর্তন এলো।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh