যমুনার ওপর ১২০ কিলোমিটার বেগে চলবে ট্রেন

রেলপথ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, রেলের দ্রুতগতি নিশ্চিত করতে যমুনা নদীর ওপর বঙ্গবন্ধু দ্বিতীয় রেলসেতু নির্মাণ কাজ ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। এই সেতু দিয়ে মিটার গেইজ ও ব্রডগেজ দুই ধরনের ট্রেন একই সাথে আসা যাওয়া করবে ১২০ কিলোমিটার বেগে, যা এখন মাত্র সর্বোচ্চ ২০ কিলোমিটার বেগে যেতে বা আসতে পারে। ২৪ সালের মধ্যে বঙ্গবন্ধু দ্বিতীয় সেতুসহ উত্তরবঙ্গে ডাবল লাইন চালু হবে।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ঠাকুরগাঁও রোড রেলস্টেশন উঁচুকরণ ও প্লাটফর্ম বর্ধিতকরণ প্রকল্পের উদ্বোধন করতে এসে প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

তিনি ঘোষণা করেন, রেলের এই উন্নয়নের মাধ্যমে ঠাকুরগাঁও থেকে বগুড়া হয়ে ঢাকা যাওয়া যাবে মাত্র ৫ থেকে ৬ ঘণ্টায়।

বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিমাঞ্চল) মিহির কান্তি গুহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ রেলওয়ের সচিব সেলিম রেজা, মহাপরিচালক ডিএন মজুমদার, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কামরুজ্জামান সেলিম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাদেক কুরাইশী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অরুনাংশু দত্ত টিটো, ঠাকুরগাঁও পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র আঞ্জুমান আরা বেগম বন্যা প্রমুখ।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনায় রেল ব্যবস্থা আধুনিকীকরণ ও আন্তর্জাতিকীকরণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় হয়ে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে রেলপথ নির্মাণের পরিকল্পনার বাস্তবায়ন শুরু হচ্ছে।

তিনি বলেন, এই পথে বাংলাদেশ থেকে ট্রেন ভারতের নিউ জলপাইগুড়ি রেলস্টেশনে গিয়ে সরাসরি পৌঁছাবে। এছাড়াও রেল যোগাযোগে বিপ্লব আনবে কক্সবাজারের সাথে সারা দেশের নিরবচ্ছিন্ন রেল যোগাযোগের মাধ্যমে।

পদ্মাসেতুর রেল সংযোগের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, রেলের গতি ও সারাদেশের এমনকি আন্তর্জাতিক যোগাযোগের মাধ্যমে রেল যোগাযোগে নতুন যুগের সূচনা করা হবে। হয়তো এগুলো আমরা এতোদিনে সব পেয়ে যেতাম যদি ১৯৭৫ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা না করা হতো। 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh