সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৯

গত ২৪ ঘন্টায় রাজধানীসহ সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে শুধু রাজধানীতে প্রাণ হারিয়েছেন চারজন। পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ থেকে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) রাতে খিলক্ষেত, ক্যান্টনমেন্ট ও কালশী এলাকায় পৃথক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারানো চারজনের তিনজন মোটরসাইকেল আরোহী ছিলেন। 

এর মধ্যে ক্যান্টনমেন্টে ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কায় দুই ভাই এবং মিরপুরের কালশীতে একজনের প্রাণ যায়। আরেকজনের মৃত্যু হয় ট্রাক উল্টে পড়ে। 

নিহতরা হলেন- আলফাজ, রাহুল, শাফিন ও তার ভাই রাফি। তাদের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ক্যান্টনমেন্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহীনুর রহমান জানান, শাফিন ও রাফি মোটরসাইকেলে ইসিবি চত্বর থেকে কালশী যাচ্ছিলেন। ক্যান্টনমেন্ট থানার সুমাত্রা ফিলিং স্টেশনের সামনে পৌঁছালে একটি ট্রাক তাদের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে দুই ভাই মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে রাস্তায় পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাদের উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ৩টার দিকে শাফিন মারা যান এবং শুক্রবার (২৮ জুন) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রাফি মারা যান।

এদিকে ক্ষিলক্ষেতে একটি পিকআপভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে পড়লে ওই ট্রাকে থাকা আলফাজ নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়। আলফাজ হোসেন একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠানে কর্মী হিসেবে কাজ করতেন। তার বাড়ি ফুলবাড়িয়ার কান্দাছিয়া গ্রামে। বাবার নাম আবদুল বারেক। থাকতেন মিরপুর এলাকায়।

অন্যদিকে মিরপুরের কালশী এলাকায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাহুল নামে এক যুবক আহত হন। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত ১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। রাহুল কালশী এলাকার জহুরুল ইসলামের ছেলে।

চট্টগ্রামে গাড়ির ধাক্কায় যুবক নিহত

চট্টগ্রাম নগরের বাকলিয়ায় রাস্তা পারাপারের সময় গাড়ির ধাক্কায় মুস্তাকিন (১৯) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার (২৮ জুন) সকাল ৭টার দিকে থানার রাজাখালী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। মুস্তাকিন কর্ণফুলী থানার শিকলবাহার দকুল হাজির বাড়ির নূর মোহাম্মদের ছেলে। তিনি পেশায় টেম্পোর হেল্পার ছিলেন।

নরসিংদীতে পিকআপ, কাভার্ডভ্যান ও লেগুনার ত্রিমুখী সংঘর্ষে চালক নিহত

নরসিংদীতে মালবাহী কাভার্ডভ্যান, পিকআপ ও লেগুনার ত্রিমুখী সংঘর্ষে পিকআপের চালক নিহত হয়েছেন। গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন পিকআপ চালকের সহকারী। গতকাল শুক্রবার (২৮ জুন) দুপুরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের রায়পুরা উপজেলার মাহমুদাবাদের নামাপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত পিকআপের চালক মো. বাচ্চু মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার নয়নপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং সহকারী আহত ফয়সাল কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার মুদ্রম এলাকার করিম মিয়ার ছেলে।

কিশোরগঞ্জে মোটরসাইকেল ও টমটমের সংঘর্ষে কিশোর নিহত

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে মোটরসাইকেল ও টমটমের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক কিশোর নিহত হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আরও দুই কিশোর গুরুতর আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার (২৮ জুন) সকাল ৯টার দিকে বাজিতপুর-সরারচর সড়কের উপজেলার পৈলনপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. ইয়াসিন হাসান পার্শ্ববর্তী গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার তরগাঁও ইউনিয়নের উত্তর খামের এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় একই এলাকার আকবর আলি সিফাত ও সানজিদ আহত হয়েছে।

নেত্রকোণায় ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজির যাত্রী নিহত

নেত্রকোণায় ট্রাকের ধাক্কায় সুজন বর্মণ নামে এক সিএনজি যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও তিন যাত্রী। গতকাল শুক্রবার (২৮ জুন) সকালে নেত্রকোণা-মোহনগঞ্জ সড়কের সদর উপজেলার শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত সুজন ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার ধলা গ্রামের বরেন্দ্র চন্দ্র বর্মণের ছেলে। তিনি নেত্রকোণার মোহনগঞ্জে তার ভগ্নিপতির স্বর্ণের দোকানে কাজ করতেন।

নান্দাইলে ট্রাক্টর উল্টে চালক নিহত

ময়মনসিংহের নান্দাইলে উল্টে যাওয়া ট্রাক্টরের নিচে চাপা পড়ে চালক মো. সুজন মিয়া নিহত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার চর বেতাগৈর ইউনিয়নের চর উত্তরবন বেড়িবাঁধ রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সুজন মিয়া ওই গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে। তিনি ১৫ বছর ধরে ট্রাক্টর চালান।


সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //