ত্বকের যত্নে আস্থা অর্জন করুক রিজুভা

ডা. তাওহীদা রহমান ইরিন

ডা. তাওহীদা রহমান ইরিন

ডা. তাওহীদা রহমান ইরিন। একজন ত্বক বিশেষজ্ঞ। রিজুভা কসমেসিউটিক্যালস্ লিমিটেডের প্রোপ্রাইটর এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক। সম্প্রতি রিজুভার এক বছর পূর্ণ হলো। ডা. ইরিনের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন শাহীন আহমেদ

রিজুভা কসমেটিকসের এক বছর পূর্তি হলো, আপনার অনুভূতি কী? 
আমরা একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছি। এখন চিকিৎসকরা রাত-দিন মানুষের সেবায় নিয়োজিত রয়েছে। আমি গর্বিত। আমি চিকিৎসক। রিজুভার এক বছর পূর্তি হলো। খুব ভালো লাগছে। আমি স্কিন নিয়ে কাজ করি। রোগীরা আমার ওপর আস্থা রাখছেন। 

একজন উদ্যোক্তা হিসেবে আপনাকে কী কী চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করতে হয়েছে?
নতুন পণ্যে অভ্যস্ততা ও পরিচিতি আসলেই অনেক চ্যালেঞ্জিং। নতুন পণ্য নিয়ে মানুষের কাছে প্রথম প্রশ্ন আসে এটি কতখানি নিরাপদ ও কার্যকর। আমার নতুন পণ্য মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার পর ইতিবাচক রিপোর্ট নেওয়ার জন্য অনেক দিন অপেক্ষা করতে হয়েছে। এভাবে কয়েক মাস পার হয়ে গেছে; কিন্তু আনন্দের বিষয় হচ্ছে অল্প কিছুদিনের মধ্যে আমরা কাঙ্ক্ষিত রিপোর্ট পেয়েছি।

আপনি চিকিৎসক থেকে উদ্যোক্তা হলেন কেন?
আমি একটি প্রতিষ্ঠানে স্কিনের চিকিৎসক হিসেবে কাজ করেছি। কাজ করতে গিয়ে দেশি বিদেশি অভিজ্ঞতার আলোকে আমাকে যেটি বেশি ভাবিয়েছে, আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ নিজের ত্বকের ব্যাপারে সচেতন নয় এবং দ্বিধান্বিত থাকে। এরপর কাজ করতে গিয়ে আমাদের দেশের আবহাওয়া এবং ত্বকের উপযোগী পণ্য বাছাইয়ে বিভিন্ন গবেষণা করি। আমি ভাবছিলাম চাকরি না করে নিজেই কিছু একটা করার । সেই তাগিদে উদ্যোক্তা হিসেবে আমার আত্মপ্রকাশ।

এক বছরে রিজুভার সফলতা কী মনে করছেন?
এই এক বছরে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় রিজুভার পণ্য পৌঁছে দিতে পেরেছি।

আপনি একজন চিকিৎসক এবং উদ্যোক্তা পাশাপাশি আপনার পরিবার রয়েছে, কীভাবে সমন্বয় করেন সবকিছু?
চারপাশে অনেক নেতিবাচক কিছু থাকবে। কিন্তু এই সেটিকে ইতিবাচকে পরিণত করতে হবে। আমার সাফল্যে আমার বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজন সবাই আনন্দিত। আর সমন্বয়ের বিষয়টি হচ্ছে নিয়মানুবর্তিতা। সব কিছু রুটিন মাফিক করলে কোনো সমস্যা হয় না। আমার জীবনসঙ্গীও চিকিৎসক। তিনি আমাকে যথেষ্ট সহযোগিতা করেন।

রিজুভাকে পাঁচ বছর পর কোথায় দেখতে চান?
আমি চাই প্রতিষ্ঠানটি দেশের সব মানুষের ত্বকের যত্নে আস্থা অর্জন করতে পারে। এবং সারাবিশ্বে রিজুভা একটি ব্র্যান্ড হিসেবে পরিচিতি পাক।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //