কঙ্গনার সম্পত্তি বন্ধক

বিতর্কের কারণেই বেশিরভাগ সময় সংবাদের শিরোনামে থাকেন বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। বিতর্ক থেকে বেশিদিন দূরে থাকতে পারেন না তিনি। কঙ্গনা হামেশাই সোজাসাপটা ভঙ্গিতে মনের কথা তুলে ধরতেও ওস্তাদ।

Caption goes here.

বলিউডের এই বিতর্কিত অভিনেত্রী নিজের বড়াই করতেও ব্যস্ত থাকেন সবসময়। একবার কঙ্গনা জানালেন, কোটি কোটি টাকার অফার সত্ত্বেও কখনো অন্যের বিয়ের অনুষ্ঠানে নাচতে রাজি হননি তিনি। 

অথচ তার ঝুলিতে রয়েছে অজস্র হিট পার্টি নম্বর। তবে এবারে অন্য কারণে আলোচনায় এলেন বলিকন্যা। অভিনেত্রী হিসেবে ‘ইমার্জেন্সি’ সিনেমার শুটিং শেষ করেছেন তিনি। আর সেই ছবি পোস্ট করে জানিয়েছেন চাঞ্চল্যকর তথ্য। ভারতের জরুরি অবস্থা নিয়ে ছবি বানিয়েছেন এ নায়িকা।

কঙ্গনা রানাউত। ছবি: ইন্সটাগ্রাম

‘ইমার্জেন্সি’ সিনেমায় দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর ভূমিকায় অভিনয় করছেন বলেও জানান। মাথায় কাঁচা-পাকা চুল, সামান্য মেকআপ, প্রস্থেথিক লুকে ইন্দিরা হিসেবে ইতিমধ্যে নানা মহলের প্রশংসা পেয়েছেন অভিনেত্রী। কিন্তু সিনেমাটি তৈরি করতে তাকে কতটা চ্যালেঞ্জ নিতে হয়েছে তা এতদিনে জানালেন।

ছবির শুটিংয়ের ছবি শেয়ার করে অভিনেত্রী তথা পরিচালক জানান, ‘ইমার্জেন্সি’ তৈরির জন্য নিজের সমস্ত সম্পত্তি তিনি বন্ধক রেখেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় মোট তিনটি ছবি আপলোড করেছেন তিনি। যাতে ইন্দিরা গান্ধীর বেশেই তাকে পরিচালনার দায়িত্ব সামলাতে দেখা যাচ্ছে। ছবির ক্যাপশনে কঙ্গনা লিখেছেন, ‘অভিনেত্রী হিসেবে ইমার্জেন্সির শুটিং শেষ করলাম। আমার জীবনের খুবই গর্বের একটা পর্যায় সম্পূর্ণ হলো। দেখে হয়তো মনে হচ্ছে এই যাত্রা খুবই সহজ ছিল, কিন্তু তা সত্যি নয়। 

কঙ্গনা রানাউত। ছবি: এনডিটিভি

নিজের সমস্ত সম্পত্তি থেকে শুটিংয়ের প্রথম দিকে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা, আমাকে প্রতি পদে পরীক্ষা দিতে হয়েছে। এরপর কঙ্গনা জানান, সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক কথা জানালেও অনেক কথা তিনি এখনো জানাননি।

কারণ তিনি অনুরাগীদের অযথা টেনশন দিতে চাননি। আবার কঠিন সময়ে নিন্দুকদেরও নিজের যন্ত্রণার বিষয়ে জানতে দিতে চাননি। ‘শুধু পরিশ্রমের মাধ্যমে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছানো যায় না। এর জন্য অদম্য মানসিকতা চাই’- অভিনেত্রীর ভাষ্য।

ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে কঙ্গনা রানাউত। ছবি: ইন্সটাগ্রাম

তার মতে, হাল না ছাড়ার মানসিকতাই মানুষকে লক্ষ্যের কাছে নিয়ে যেতে পারে। ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নিয়ে নতুন করে বাঁচার অনুপ্রেরণা জোগায়। ১৯৭৫ সালের ২৫ জুন থেকে ১৯৭৭ সালের ২১ মার্চ পর্যন্ত, টানা ২১ মাস ভারতে জারি হয়েছিল জরুরি অবস্থা। সেই সময় প্রধানমন্ত্রী ছিলেন ইন্দিরা গান্ধী। কঙ্গনার এই ছবিতে সেই সময়টাই তুলে ধরা হয়েছে।

ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে কঙ্গনা রানাউত। ছবি: ইন্টারনেট

কঙ্গনা আগেই বলে দিয়েছেন ‘ইমার্জেন্সি কোনো বায়োপিক না, এটা একটা রাজনৈতিক ছবি।’ কঙ্গনার কথায়, ‘ইন্দিরা গান্ধীর বায়োপিক নয় এই ছবি। বরং এটা একটা বড় প্রেক্ষাপটকে তুলে ধরে। আরও নির্দিষ্টভাবে বলতে গেলে এটা একটা রাজনৈতিক ছবি যা আমাদের জেনারেশনকে সাহায্য করবে বর্তমান ভারতের সামাজিক-রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটকে বুঝে নিতে।’

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2023 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //