বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ‘বিশেষ সেবা সপ্তাহ’

রমজান ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ‘বিশেষ সেবা সপ্তাহ’ পালনের উদ্যোগ নিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) থেকে ৬ মে পর্যন্ত এই সেবা সপ্তাহ পালন করা হবে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে রমজান মাসে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণসহ জনসাধারণের প্রত্যাশিত সেবা নিশ্চিত ও নির্বিঘ্ন রাখার লক্ষ্যে সব মন্ত্রণালয়কে বিশেষ সেবা সপ্তাহ পালনের নির্দেশ দেয়া হয়। সরকারি দফতরে ‘বিশেষ সেবা সপ্তাহ’ পালনের অংশ হিসেবে মন্ত্রণালয় ও অধীন দফতরগুলোতে এটা পালন করা হচ্ছে। 

‘বিশেষ সেবা সপ্তাহ’ পালনের জন্য মন্ত্রণালয়ের সব দফতর ও সংস্থা নিজ নিজ সেবা নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করবে।

মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সেবা সপ্তাহ পালন উপলক্ষে করোনা মহামারিকালে রমজান ও ঈদুল ফিতর সামনে রেখে বাজারে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে বাজার মনিটরিং কার্যক্রম জোরদার করা হয়েছে। নিত্যপণ্যের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার জন্য বন্দরগুলোসহ সব পরিবহন ও যোগাযোগ ব্যবস্থা অটুট রাখার লক্ষ্যে সমন্বয় কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হয়েছে। 

টিসিবি ‘বিশেষ সেবা সপ্তাহ’ উপলক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী অধিকসংখ্যক জনগণের মধ্যে বিতরণের ব্যবস্থা নেবে। ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) পণ্য বরাদ্দের পরিমাণ বৃদ্ধিসহ ট্রাকসেল বিক্রয় কার্যক্রম বৃদ্ধি করবে। কোভিড-১৯ বিস্তার রোধকল্পে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ এবং সেবা সপ্তাহ উল্লেখপূর্বক ট্রাকসেলে বিশেষ ব্যানার ব্যবহার করবে।

জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুদ ও সরবরাহ, ন্যায্যমূল্যে কেনা-বেচা ও দাম স্থিতিশীল রাখার জন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঢাকা মহানগরসহ সারাদেশে সপ্তাহে সাতদিন বাজার তদারকি জোরদার করবে এবং দোকানে পণ্যের দামের তালিকা প্রদর্শনের বিষয়টি নিশ্চিত করবে। বাজার অভিযানে মাস্ক বিতরণ এবং করোনা সংক্রমণরোধে স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে জনসাধারণকে সচেতন করবে।

বিশেষ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো থেকে রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে রফতানির বিপরীতে ইস্যু করা সব সার্টিফিকেট অব অরিজিন (সিও), জিএসপি, সাপটা, সাফটা, আপটা আবেদনের তারিখের মধ্যে সেবা দেওয়ার জন্য হেল্প ডেস্ক স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়াও রফতানি বিষয়ক যেকোনো পরামর্শ দেয়ার জন্য ‘পরামর্শ ডেস্ক স্থাপন’ করা হয়েছে। 

যৌথ মূলধনি কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদফতর সিঙ্গেল প্রসেস প্রক্রিয়ায় কোম্পানি নিবন্ধন সেবাগ্রহীতাদের অনলাইনে আবেদন পূরণে সহায়তা করবে এবং দুইদিনের মধ্যে মর্টগেজ নিবন্ধন (অনলাইন) কাজ সম্পন্ন ও স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইমেইলে সার্টিফিকেট প্রদান করবে। শেয়ার ট্রান্সফার-সংক্রান্ত পেন্ডিং রিটার্ন রেকর্ডভুক্তকরণে ক্র্যাশ কর্মসূচি গ্রহণ এবং দীর্ঘদিনের পেন্ডিং রিটার্ন নিষ্পত্তিকরণের জন্য ক্র্যাশ প্রোগ্রাম গ্রহণ করবে, ভিডিও পোর্টাল উম্মুক্ত করবে এবং ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে সার্টিফাইড কপি প্রদান করবে।

বাংলাদেশ চা বোর্ড চলতি মৌসুমে দেশে চায়ের উৎপাদন স্বাভাবিক রাখার জন্য দেশের সব চা বাগানে ভর্তুকি মূল্যে সার বিতরণে সহায়তাদান কার্যক্রম এবং অনলাইন চা রফতানি লাইসেন্স প্রদান অব্যাহত রাখবে। ২০২১-২২ নিলামবর্ষের নিলাম কার্যক্রম চট্টগ্রাম ও শ্রীমঙ্গলে আগামী ৩ মে শুরু হবে এবং ‘দুটি পাতা একটি কুড়ি’ এবং ‘চা সেবা’ অ্যাপস দুটির মাধ্যমে গ্রাহক পর্যায় চা তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক সেবা প্রদান অব্যাহত রাখবে।

চলতি মৌসুমে দেশে চায়ের উৎপাদন স্বাভাবিক রাখার জন্য চা বাগানের মৃত্তিকা পরীক্ষা, চায়ের নমুনা পরীক্ষা এবং পেস্টিসাইড পর্যালোচনা করে চা উৎপাদন-সংশ্লিষ্টদের উপদেশ প্রদান অব্যাহত রাখবে এবং চায়ের উৎপাদন স্বাভাবিক রাখার জন্য চা বাগানগুলোয় স্বাস্থবিধি মেনে চা উৎপাদন কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh