ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদনে বাড়ছে না সময়

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময়সীমা আর বাড়ানো হবে না। 

আজ মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক ও কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

এরই মধ্যে ভর্তির জন্য আবেদনকারী প্রার্থীর সংখ্যা ছাড়িয়েছে তিন লাখ।

অধ্যাপক মোস্তাফিজুর বলেন, ৮ মার্চ থেকে শুরু হয়ে এ আবেদন চলছে। ঘোষণা অনুযায়ী ৩১ মার্চ রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত এ আবেদন চলবে। আবেদনের সময় বাড়ানো হবে না। 

তিনি বলেন, কারিগরি জটিলতার কারণে ভর্তি আবেদন তিনদিন বন্ধ ছিল। এ সত্ত্বেও আজ সকাল পর্যন্ত সব ইউনিট মিলে মোট আবেদন পড়েছে ৩ লাখ ২০ হাজারের বেশি। ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে পাঁচটি ইউনিটে মোট শিক্ষার্থী ভর্তির আবেদন করেছিলেন ২ লাখ ৭০ হাজারের বেশি। এবার রেকর্ডসংখ্যক শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন করেছে।

ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা ৩১ মার্চ পর্যন্ত অনলাইনে (admission.eis.du.ac.bd) ঠিকানায় প্রবেশ করে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন।  রাষ্ট্রায়ত্ত চারটি ব্যাংকের পাশাপাশি মোবাইল ব্যাংকিং, ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবা ইত্যাদি ব্যবহার করে এবার ভর্তি-আবেদনের নির্ধারিত ফি জমা দেয়া যাবে।

গত ৮ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির অনলাইন আবেদনপ্রক্রিয়ার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান। তবে কারিগরি জটিলতার কারণে গত ১১ মার্চ বেলা পৌনে ১টা থেকে আবেদন প্রক্রিয়া বন্ধ ছিল। পরে ১৪ মার্চ রাত থেকে আবেদন প্রক্রিয়া আবার শুরু হয়।

আগামী ২১ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিট, ২২ মে কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিট, ২৭ মে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিট, ২৮ মে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিট ও ৫ জুন চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের বহুনির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আর অঙ্কন পরীক্ষা হবে ১৯ জুন। প্রতিটি ইউনিটের পরীক্ষা বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

ক, খ, গ ও ঘ ইউনিটে মোট ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা হবে। এক্ষেত্রে ৬০ নম্বরের বহুনির্বাচনী ও ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা হবে। উত্তর দেয়ার জন্য ৪৫ মিনিট করে সময় থাকবে। 

‘চ’ ইউনিটে ৪০ নম্বরের বহুনির্বাচনী পরীক্ষা হবে। সময় ৩০ মিনিট। এর ফলাফলের ভিত্তিতে পরে মেধাক্রম অনুযায়ী ১ হাজার ৫০০ জন ৬০ নম্বরের অঙ্কন পরীক্ষায় অংশ নেবেন। অঙ্কন পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট সময় বরাদ্দ থাকবে। 

পাঁচটি ইউনিটেই প্রাপ্ত নম্বরের সাথে এসএসসি ও এইচএসসির জিপিএর ওপর ১০ করে মোট ২০ নম্বর যোগ করে মেধাতালিকা তৈরি করা হবে।

‘ক’ ইউনিটে আবেদন করতে হলে এসএসসি ও এইচএসসিতে আলাদাভাবে ন্যূনতম জিপিএ-৩.৫-সহ মোট ৮.৫; ‘খ’ ইউনিটে আলাদাভাবে জিপিএ-৩-সহ মোট ৮; ‘গ’ ইউনিটে আলাদাভাবে জিপিএ-৩.৫-সহ মোট ৮ থাকতে হবে। 

বিভাগ পরিবর্তনের ‘ঘ’ ইউনিটে নিজ নিজ ইউনিটে যোগ্যতাপূরণ সাপেক্ষে আবেদন করা যাবে। এছাড়া ‘চ’ ইউনিটে আবেদন করতে হলে এসএসসি ও এইচএসসিতে আলাদাভাবে জিপিএ-৩-সহ মোট ৭ থাকতে হবে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এবারের ভর্তি পরীক্ষা হচ্ছে দেশের আটটি বিভাগীয় শহরে। বিভাগীয় শহরে কেন্দ্র হওয়ার কারণে এবারের ভর্তি পরীক্ষায় পাঁচটি ইউনিটেই আবেদন ফি ৬৫০ টাকা।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh