৫ লাখ টাকায় বাঁচতে পারে শিক্ষার্থী রবিউলের প্রাণ

দীর্ঘদিন ধরে পেটে মাংস বেড়ে যাওয়া ও ফুসফুসে ঘা নিয়ে কষ্টে দিনাতিপাত করছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) বাংলা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী রবিউল ইসলাম সোহাগ। 

বর্তমানে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। এখন তার উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারতে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। তবে চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন চার থেকে পাঁচ লাখ টাকা। তার পরিবারের পক্ষে এত টাকা জোগাড় করা সম্ভব নয়। তাই সমাজের বিত্তবানদের কাছে আর্থিক সহায়তার আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

রবিউলের পরিবার জানায়, গত পাঁচ মাস ধরে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে কোনো রোগ নির্ণয় করা যাচ্ছে না। তার রোগ নির্ণয়ে ১৪ টা পরীক্ষা করা হলেও কোনো খারাপ রিপোর্ট আসেনি। এদিকে দিন দিন তার অবস্থা অবনতির দিকে যাচ্ছে। এখন রবিউলের উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারতে নিয়ে যেতে হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

এই মুহূর্তে সঠিক চিকিৎসা শুরু করলে চার থেকে পাঁচ লাখ টাকায় আরোগ্য লাভ করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তবে চিকিৎসায় বিলম্ব করলে জটিল পর্যায়ে চলে যেতে পারে। তখন কয়েকগুণ বেশি টাকা খরচ করেও আরোগ্য লাভ অসম্ভব হয়ে দাঁড়াবে।

রবিউল বলেন, ইতিমধ্যে চিকিৎসায় এক লাখ টাকা খরচ হয়ে গেছে। আমার চিকিৎসার মধ্যে হঠাৎ করে মায়ের হাত ভেঙে যায়। হাত ভাঙার সময় ও হাতের রড খোলার সময় দুইবার অপারেশন করতে হয়েছে। বাবাও শ্বাসকষ্টে ভুগছেন। অনেক ঋণ করে এতদিন আমার চিকিৎসাভার চালিয়েছি। এতদিন এসব দুঃখ-কষ্ট আমি নিজের মধ্যেই চেপে রেখে ছিলাম। কিন্তু এখন আর চেপে রাখার সামর্থ্য নেই আমার।

মাস্টার্স শেষ করা হয়নি রবিউলের। এখন নিজের চিকিৎসার দুশ্চিন্তা যেন জেঁকে ধরেছে তাকে। তাই বাধ্য হয়ে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন তিনি। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে যে কেউ এগিয়ে আসতে পারবেন তার চিকিৎসায়।

রবিউল ইসলামের ব্যক্তিগত বিকাশ নম্বর ০১৭৩৭৮৮৬৩৮৭, রকেট নম্বর ০১৭৩৫১৯৭৮৫৩ ও নগদ অ্যাকাউন্টের ০১৭৩৫১৯৭৮৫৩ নম্বরে সহায়তা পাঠানো যাবে।


মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh