শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিলো রবির শিক্ষার্থীরা

 রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের (রবি) আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। ফাইল ছবি

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের (রবি) আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। ফাইল ছবি

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ফোন করে আশ্বাস দেয়ায় কঠোর কর্মসূচি প্রত্যাহার করেছেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের (রবি) শিক্ষার্থীরা। অবরুদ্ধ প্রশাসনিক ভবন খুলে দিলেও একাডেমিক ভবনে অবস্থান করছেন তারা।

আজ শনিবার (২ অক্টোবর) সকাল ১১টার দিকে তারা প্রশাসনিক ভবন থেকে অবরোধ তুলে নেন।

শিক্ষামন্ত্রীর কাছ থেকে ন্যায়বিচারের আশ্বাস পেয়ে অবরোধ প্রত্যাহার করলেও অফিস চলাকালীন সময়ে সেখানে শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি চলবে বলে জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনের মুখপাত্র শামীম হোসেন বলেন, আমার সঙ্গে মন্ত্রীর কথা হয়েছে। তার আশ্বাসের প্রেক্ষিতে কঠোর কর্মসূচি থেকে সড়ে এসেছি। তবে সংস্কৃতি ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে স্থায়ী বরখাস্ত না করা পর্যন্ত তাদের এই আন্দোলন চলবে।

তিনি বলেন, আগামী সোমবার (৪ অক্টোবর) তদন্ত শেষ হবে। তদন্তের রিপোর্ট পর্যন্ত আমরা অপেক্ষা করব। তদন্তে যদি আমাদের ওপর ন্যায় বিচার করা হয়, তবেই আন্দোলন থেকে বের হবো আমরা। না হলে সোমবার থেকে আবারও আন্দোলন শুরু হবে।  

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাস সংস্কৃতি ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কাটার ঘটনায় গত সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে বিভাগের প্রথম বর্ষের এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এ ঘটনার পরদিন মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) থেকে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

তারা মঙ্গলবার সকাল থেকে পরীক্ষা বর্জন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন। বুধবার থেকে ওই শিক্ষকের স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে অনশন শুরু করেন। বৃহস্পতিবার প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও করেন শিক্ষার্থীরা।

এ পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়য়ের সিন্ডিকেটের জরুরি সভায় বৃহস্পতিবার রাতে সংস্কৃতি ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্ত হয়। তদন্ত প্রতিবেদন সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে চূড়ান্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানানো হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়য়ের প্রোক্টর রওশন আলম বলেছিলেন, শিক্ষার্থীরা বাস্তবতা না বুঝে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। চাইলেই কাউকে তাৎক্ষণিক চাকুরিচ্যুত করা যায় না, এজন্য নিয়ম আছ। তদন্ত কমিটি কাজ করছে। তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //