‘অবৈধ’ নিয়োগ নিয়ে বছরজুড়ে আলোচনায় রাবি

রঙিন স্বপ্ন ও প্রত্যাশা নিয়ে আসে একটি সোনালি দিন। কিছু স্মৃতির বিনিময়ে সবার জীবনেই থাকে প্রাপ্তি ও অপ্রাপ্তির ইতিহাস। এভাবে রাত ও দিনের পালাবদলে পার হয়ে যায় এক একটি বছর। এর মধ্যেই ঘটে যায় কতশত ঘটনা। বছরের শুরুটা হয়েছিল করোনার ভয়াবহতার মধ্য দিয়ে। ফলে বন্ধ ছিল শিক্ষাঙ্গনের দুয়ার। তবুও থেমে থাকেনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাফল্য, ব্যর্থতা, অনিয়ম, দুর্নীতি ও নিয়মবহির্ভূত নানা কর্মকাণ্ড।

বছরের শুরু হয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে তালা ও প্রশাসন ভবন অবরোধের মধ্যদিয়ে। পরবর্তীতে হল-ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, নিয়ম বহির্ভূতভাবে সাবেক উপাচার্যের ১৩৮ জনকে নিয়োগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের মাটি চুরি, কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হকের চিরবিদায়, আবাসিক ছাত্রীদের একের পর এক আন্দোলন ও শিক্ষার্থীদের জন্য ১৭ নির্দেশনাসহ অসংখ্য ঘটনা নিয়ে বছর জুড়ে দেশব্যাপী আলোচনা-সমালোচনার বিষয়বস্তু ছিল বিশ্ববিদ্যালয়টি।

উপাচার্যের বাসভবনে তালা ও প্রশাসন ভবন অবরোধ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্যসহ প্রশাসন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতির তদন্ত সাপেক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ে সব ধরনের নিয়োগ স্থগিত রাখতে চিঠি দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এই স্থগিতাদেশের পর নিয়োগের দাবিতে উপাচার্যের বাসভবনে তালা ঝুলিয়ে প্রশাসন ভবন অবরোধ করেন চাকরি প্রত্যাশী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ও বর্তমান ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

হল-ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

করোনায় যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি দীর্ঘ হতে শুরু করে, তখন থেকেই হল-ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন জোরালো হয়। ২০২০ সালে মার্চ মাস থেকে বন্ধ থাকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। বার বার হল-ক্যাম্পাস খোলার তারিখ ঘোষণা করা হয়। পরে অনলাইনে ক্লাস-পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলেও দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার জন্য বিক্ষোভ শুরু করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

মুক্তিযুদ্ধকালীন মর্টারশেল ও রকেট লঞ্চার

বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ শামসুজ্জোহা হলের পাশে পুকুর খননের সময় মুক্তিযুদ্ধে ব্যবহৃত বেশ কয়েকটি মর্টারশেল ও রকেট লঞ্চার উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারকৃত মর্টারশেলগুলো অবিস্ফোরিত হওয়ায় সেনাবাহিনীর বোম্ব ডিসপোজাল টিম এসে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে সেগুলো নিষ্ক্রিয় করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মাটি চুরি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জমি লিজ নিয়ে সেখানে পুকুর খনন করে জমির মাটি চুরি করে বিক্রির অভিযোগ উঠে দুই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও স্থানীয় এক ঠিকাদারের বিরুদ্ধে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জোহা হল ও সুইপার কলোনির পাশের জমিতে খননযন্ত্র দিয়ে মাটি কেটে রাতের আঁধারে ট্রাকে করে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশ্ববর্তী ইটের ভাটা ও অন্যান্য জায়গায় বিক্রি করেন। ইজারার শর্ত ভেঙে ক্যাম্পাসের বাহিরে মাটি নিতে প্রশাসন নিষেধাজ্ঞা দিলেও তা অমান্য করেন তারা। রাতের অন্ধকারে মাটি চুরি করার সময় ট্রাক উল্টে চাপা পড়ে এক শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনাও ঘটে।

১৩৮ জনের ‘অবৈধ’ নিয়োগ নিয়ে তোলপাড়

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মেয়াদের শেষ দিনে নিয়মবহির্ভূতভাবে ১৩৮ জনকে নিয়োগ দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান। নিয়োগের খবর গণমাধ্যমে আসার পর ওই দিনই এ নিয়োগকে ‘অবৈধ ও বিধিবহির্ভূত’ উল্লেখ করে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। নিয়োগের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করলে প্রতিবেদনে এই নিয়োগকে পুনরায় ‘অবৈধ’ ঘোষণা করে মন্ত্রণালয়। পরে এখন পর্যন্ত নিয়োগপ্রাপ্তদের কর্মক্ষেত্রে যোগদান স্থগিত রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, টেলিভিশন ও পত্র-পত্রিকায় মূল আলোচনা-সমালোনার বিষয়বস্তু ছিল এই অস্থায়ী নিয়োগ।

নতুন উপাচার্য ও উপ-উপাচার্য নিয়োগ

চলতি বছরের ৬ মে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের মেয়াদ শেষ হয়। এরপর গত ২৯ আগস্ট পরিবেশ বিজ্ঞান ইন্সটিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তারকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এছাড়া উপ-উপাচার্য পদে অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহার মেয়াদ শেষ হলে আগামী চার বছরের জন্য উপ-উপাচার্য হিসেবে নতুন নিয়োগ পেয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম টিপু।

দেড় বছর পর খুলেছে শিক্ষাঙ্গনের দুয়ার

করোনা মহামারীর কারণে ২০২০ সালের ১৮ মার্চ থেকে বন্ধ হয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। বার বার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার তারিখ ঘোষণা করা হলেও দীর্ঘ প্রায় দেড় বছর পর খুলেছে শিক্ষাঙ্গনের দুয়ার। গত ১৭ অক্টোবর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলো খোলা হয়। পরবর্তীতে ২০ অক্টোবর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস শুরু হয়।

ছয় ক্যাটাগরির নির্বাচনে আওয়ামীপন্থীদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা

বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট, ডিন, শিক্ষক সমিতি, ফাইন্যান্স কমিটি, শিক্ষা পরিষদ এবং পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কমিটির নির্বাচনে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছেন। মোট ৪০ টি পদের মধ্যে ৩২ পদেই জয় পেয়েছেন আওয়ামীপন্থী মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূলবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ সমর্থিত হলুদ প্যানেল থেকে। অন্যদিকে ৮ টি পদে নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপি-জামায়াতপন্থী বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদ ও ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী শিক্ষক গ্রুপ সমর্থিত সাদা প্যানেলে শিক্ষকরা।

প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হকের চিরবিদায়

দীর্ঘ দিন ধরে অসুস্থ থাকার পর বিশ্ববিদ্যালয় হাউজিং সোসাইটির নিজ বাসভবনে মারা যান উপমহাদেশের প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। তাঁর মৃত্যুর পর শোকের ছায়া নেমে আসে সাহিত্যের জগতে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার চত্বরে সমাহিত করা হয় ‘আগুনপাখি’র এই স্রষ্টাকে।

হলের সমস্যা দূরীকরণে ছাত্রীদের একের পর এক আন্দোলন

ছাত্রীদের আবাসিক হলে খাবারের মান বৃদ্ধি, সান্ধ্য আইন পরিবর্তন ও ইন্টারনেটের ফ্রিকোয়েন্সি বাড়ানোসহ দশ দফা দাবিতে একের পর এক আন্দোলন করে শিক্ষার্থীরা। প্রথমে তাপসী রাবেয়া হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করার কয়েকদিন পর একই দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে বেগম রোকেয়া হলের শিক্ষার্থীরা।

প্রথম বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক সনৎ কুমার সাহা

প্রথমবারের মতো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক’ পদে মনোনীত হয়েছেন বিশিষ্ট গবেষক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সনৎ কুমার সাহা। বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও বাংলা সাহিত্য নিয়ে গবেষণায় বিশেষ অবদানের জন্য দুই বছরের জন্য তাকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়।

১৬ ডিসেম্বরকে ‘স্বাধীনতা দিবস’ উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তি

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসকে ‘স্বাধীনতা দিবস’ হিসেবে উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তি দেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠে। পরে সংশোধনী দিয়ে পুনরায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে হল প্রশাসন।

শিক্ষার্থীদের জন্য অধ্যাদেশভুক্ত ১৭ নির্দেশনা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাদেশে বিধিবদ্ধ আইনের আলোকে ‘ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নিয়ম-শৃঙ্খলা’ শিরোনামে ১৭ টি নির্দেশনা দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর মধ্যে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তারা, রাতের খাবারের পর ছাত্রদের আবাসিক হলে রোল কল করা ও কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ, হল সংসদ, বিভাগীয় সমিতি ব্যতীত অন্য কোনো সংগঠন গঠন না করার নির্দেশনা দেওয়া ছিল। এটি প্রত্যাহারের দাবিতে সরব হয়ে ওঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা। পরবর্তীতে সেটি প্রত্যাহার করে নেয় কর্তৃপক্ষ।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //