কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে আগুন, ক্ষতিপূরণের দাবীতে রাস্তায় শিক্ষার্থীরা

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন সুফিয়া আজিজ ভিলা নামের একটি মেসে আগুন লেগে পুড়ে গেছে শিক্ষার্থীদের মোবাইল, ল্যাপটপ, আসবাবপত্র, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র   ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (১ জানুয়ারি) ভোর ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ত্রিশাল ফায়ার সার্ভিস, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা প্রায় এক ঘণ্টারও বেশি সময় চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে শিক্ষার্থীদের মোবাইল, ল্যাপটপ, আসবাবপত্র, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও অন্যান্য আনুষাঙ্গিক জিনিস।

ফায়ার সার্ভিস ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মেস সংলগ্ন বৈদ্যুতিক খুঁটির শর্ট সার্কিট থেকে ভোর ৫টার দিকে এ আগুনের সূত্রপাত ঘটে। আগুনে পুড়ে গেছে ওই মেসের ৬টি কক্ষ। ওই মেসে মোট ৪৪ জন ছাত্রী থাকে।

ঘটনার পরপরই সকাল সাড়ে ৮টায় ক্যাম্পাসের ভিসি বাংলোর সামনে ৩ দফা দাবিতে আন্দোলনে নামে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

দাবিগুলো হচ্ছে:

১. আজকের মধ্যে হল খুলে দিতে হবে। ২. শিক্ষার্থীদেরকে ১০০%আবাসিক ব্যবস্থার মধ্য আনতে হবে। ৩. ভার্সিটি প্রশাসনকে  ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলেন, নানা সময়ে এই মেসগুলোর নিরাপত্তাহীনতা নিয়ে কথা বললেও প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। চুরি, আগুন যেন নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। আমরা আর হেলাফেলা চাই না, নতুন হল দুটো খুলে দিয়ে আমাদের আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিত না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব।

আন্দোলনরতদের সাথে কথা বলতে উপস্থিত হন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর, ছাত্র উপদেষ্টা ও হল প্রভোস্ট। তারা আজকের ঘটনার জন্য সমবেদনা জানিয়ে বলেন, ‘তোমাদের দাবি যৌক্তিক। কিন্তু আমাদের হলগুলোতে বেশ কিছু সংকট আছে। গ্যাস নেই, লোকবল নেই। আমাদের কাজ চলমান। শীঘ্রই চালু করতে পারবো বলে আশাবাদী আমরা।

তবে শিক্ষার্থীর এসব আশ্বাসকে আন্দোলন দমনের আজুহাত দাবি করে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //