নিরাপদ সড়কের দাবিতে চুয়েট শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

নিরাপদ সড়কের দাবিতে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) শিক্ষার্থীরা আবারো মানববন্ধন করেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২ মে) বিকাল ৪ টার দিকে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা জেলা প্রশাসন এবং সড়ক ও জনপদ বিভাগের উদ্দেশ্যে  তাদের ৪ দফা দাবি তুলে ধরেন।

তাদের দাবিসমূহ হলো- চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে ডিভাইডার স্থাপনসহ সর্বনিম্ন সংখ্যক গাছ নিধন করে চার লাইনের রাস্তা প্রশস্তকরণ। কার্যক্রম শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত লোকাল বাস (শাহ আমানত, এবি ট্রাভেলস ও অন্যান্য) চলাচল বন্ধ রাখা। সড়কের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে ট্রাফিক পুলিশের অবস্থান নিশ্চিত করন এবং নিরবিচ্ছিন্ন ট্রাফিক মনিটরিং ব্যবস্থা।

এসময় শিক্ষার্থীরা বলেন, নিরাপদ সড়ক সকলেরই কাম্য। আমরা চাইনা আমাদের আর কোনো ভাই অকালে প্রাণ হারাক। তাই, আমাদের চার দফা দাবিগুলো আমরা জেলা প্রশাসন এবং সড়ক ও জনপদ বিভাগের সাথে সংশ্লিষ্ট দাবিগুলো তুলে ধরছি।

মানববন্ধনে জেলা প্রশাসকের উদ্দেশ্য চুয়েটের সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষে আশিকুল ইসলাম তানিম বলেন, জেলা প্রশাসক আমাদের চুয়েটের উপাচার্যকে আশ্বাস দিয়েছেন, আমাদের যে নিরাপদ সড়কের দাবি সমূহ জেলা প্রশাসন ও সড়ক এবং জনপদ সম্পর্কিত আছে, সেগুলো পূরণে জেলা প্রশাসক যথেষ্ট পরিমাণ সাহায্য সহযোগিতা করবেন। কিন্তু এখনো এ কাজের কোনো অগ্রগতি আমরা দেখতে পাইনি। তাই আজ আমরা এ শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন পালন করছি।

তৃতীয় বর্ষের পেট্রোলিয়াম ও মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী সাদিক লতিফ বলেন, আজ আমরা এখানে দাঁড়িয়েছি নিরাপদ সড়কের জন্য। আমাদের চাওয়া আর যকোনো কোনো মায়ের কোল যেনো খালি না হয়, কোনো ভাই যেনো ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। উপাচার্য মহোদয়ের মাধ্যমে প্রশাসনের উপর মহল পর্যন্ত আমরা এই বার্তা দিতে চাই যেনো তারা দ্রুত চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কের কাজ শুরু করে। ইতিমধ্যে কাপ্তাই সড়কের বেশ কিছু জায়গায় ট্রাফিক পুলিশদের অবস্থান নিয়ে কর্মতৎপর থাকতে দেখা গেছে। আমরা আহ্বান জানাবো, এটা যেনো শুধুমাত্র লোকদেখানো বা দায়সারা কাজ না হয়ে বরং সমাধানের একটি মাধ্যম হয়৷

উল্লেখ্য, গত ২২/৪/২০২৪ তারিখে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থানার জিয়ানগরে বাসের ধাক্কায় নিহত হন চুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শান্ত সাহা এবং একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তৌফিক হোসাইন। এছাড়া গুরুতর আহত হন একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের আরো এক শিক্ষার্থী জাকারিয়া হিমু। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা দশ দফা দাবিতে চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন। পরবর্তীতে প্রশাসনের আশ্বাসে সড়ক অবরোধ স্থগিত করলেও দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা দেন। তাদের আন্দোলনের ১০ দফা দাবির মধ্যে জেলা প্রশাসন সংশ্লিষ্ট ৪ দাবি নিয়ে আজ মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //