রাবিতে সর্বজনীন পেনশন স্কিম প্রত্যাহারের দাবিতে কর্মবিরতি

অর্থ মন্ত্রণালয়ের জারি করা পেনশনসংক্রান্ত প্রত্যয় স্কিমের প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহারের দাবিতে অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। কর্মবিরতির পাশাপাশি আজ মঙ্গলবার (৪ জুন) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনের সামনে প্যারিস রোডে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা। এসময় তারা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের সুপার গ্রেডে অন্তর্ভুক্তিকরণ এবং স্বতন্ত্র বেতন স্কেল প্রবর্তনের দাবিও জানান।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের আহ্বানে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা। কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মো. হাবিবুর রহমান ও সঞ্চালনা করেন অধ্যাপক মো. ওমর ফারুক সরকার। এসময় বক্তব্য দেন প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সোহেল হাসান, ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক মামুনুর রশীদ। এসময় সেখানে প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন। 

অবস্থান কর্মসূচিতে প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক রেজাউল করিম বলেন, ক্লাস-পরীক্ষা বাদ‌ দিয়ে আমরা আজ অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি। আমাদের এভাবে অবস্থান করতে হবে কখনো ভাবতে পারিনি। আমাদের চাকরি পরবর্তী জীবন যাতে একটু ভালোভাবে কাটে সেজন্য পেনশন অনেক গুরুত্বপূর্ণ। নতুন এই স্কিমের জন্য আমাদের সঙ্গে তাদের একটা বড় বৈষম্যের সৃষ্টি হবে। এই পেশায় যাতে মেধাবী শিক্ষার্থীরা না আসে, সে জন্য একটা চক্রান্ত করা হচ্ছে। আমরা তো আমেরিকার মতো সুযোগ সুবিধা চাচ্ছি না। আমরা চাই শিক্ষার মান, শিক্ষকদের মান, গবেষণার মান উন্নত করতে হবে।

অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, শিক্ষা ছাড়া একটা জাতি কখনো উন্নত জাতিতে পরিণত হতে পারে না। আজকে শিক্ষকদের অনেক জায়গায় সুযোগ সুবিধা নাই, যা ছিল তাও কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। যারা স্কিম তৈরি করছে তারা এর ভিতরে আসবে না কিন্তু আমাদের উপর চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তারা আমাদেরকে হেয় করার চেষ্টা করছে।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক মো. হাবিবুর রহমান বলেন, একটা বাহারি নাম দিয়ে গত ১৩ মার্চ সর্বজনীন পেনশন স্কিমে শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। কারণ এই স্কিমের ফলে আমরা যা টাকা দিবো, সেই টাকাই ফেরত দেওয়া হবে এটিই হচ্ছে সর্বজনীন পেনশন। আজ আমরা এখানে আমাদের জন্য অবস্থান নেয়নি। আজ থেকে ২৬ দিন পরে আমাদের সহকর্মী হিসেবে যারা নিয়োগ পাবেন তাদের রক্ষার জন্য, দেশ-সমাজকে রক্ষা করার জন্য এখানে অবস্থান নিয়েছি।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //