কোটা বাতিলের দাবিতে কাল নতুন কর্মসূচি

সরকারি চাকরিতে কোটাপদ্ধতি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশীরা রাজধানীর শাহবাগ মোড় ছেড়ে দিয়েছেন। আজ সোমবার (৮ জুলাই) রাত সাড়ে ৮টার দিকে তারা শাহবাগ ছেড়ে দেন।  

বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম বলেন, ‘আমরা সর্বাত্মক ব্লকেডের প্রস্তুতি নিচ্ছি। পাশাপাশি আমাদের সকল শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন ও ছাত্রধর্মঘট চলমান থাকবে। আগামীকাল অফলাইন ও অনলাইন গণসংযোগ চলবে। গণসংযোগ করে আগামীকাল বিকেলে সারা দেশের শিক্ষার্থীদের সমন্বয় করে সর্বাত্মক ব্লকেডের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেব।’ 

নাহিদ ইসলাম এ সময় আরও বলেন ‘বল এখন সরকারের কোটে। সরকারের কাছেই আমাদের এক দফা। এক দফা মেনে নিতে হবে। আমাদের এখন আর আদালত দেখিয়ে লাভ নেই।’

আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক হাসনাত আব্দুল্লাহ বলেন, ‘আমরা পড়ার টেবিলে ফিরে যেতে চাই। কিন্তু আপনারা আমাদের ধৈর্যের পরীক্ষা নেবেন না। আমরা থাকব রাজপথে, আপনারা থাকবেন এসি রুমে, গভীর ঘুমে; তা হতে পারে না। আমাদের দাবি নিয়ে সমন্বয় করা না হলে ভয়াবহ পরিণাম হবে। আমাদের কোনো ভাই, কোনো বোনের কোনো কিছু হলে দায়ভার আপনাদেরকে নিতে হবে।’

সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা বাতিলের দাবিতে তীব্র আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনকারীরা কোটা বাতিল-সহ চার দফা দাবিতে সারা দেশে ‘বাংলা ব্লকেড’ নামে একটি কর্মসূচিও পালন করেছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ জুন সরকারি প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাসহ অন্য কোটা বাতিল করে জারি করা পরিপত্র অবৈধ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট। ফলে সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল থাকবে।

সরকারি চাকরির প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় আপাতত বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) আপিল বিভাগে শুনানি হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি।

 

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //