মহাখালীর সাততলা বস্তিতে আগুন, পুড়েছে বহু ঘর-দোকান

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর মহাখালীর সাততলা বস্তিতে লাগা আগুনে ৬০-৭০টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তবে এ ঘটনায় এখনো হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

গতকাল সোমবার (২৩ নভেম্বর) রাত ১১টা ৪৫ মিনিটে আগুনের সূত্রপাত হয় এবং রাত ১টার দিকে নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইউনিট অংশ নেয়।

ঘটনাস্থলে রাত ১টার পর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিল্লুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, আগুন লাগার ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হবে। ভস্মীভূত ঘরের সংখ্যা ৪০ থেকে ৭০টির মধ্যে বলে তার ধারনা। এছাড়া তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। 

তিনি বলেন, আগুন নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের প্রথম ইউনিট ১১টা ৫০ মিনিটে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। তবে সরু পথ ও পানির উৎসের অপ্রতুলতার কারণে তাদের বেগ পেতে হয়। আগুন লাগার পরই আগুনের লেলিহান শিখা পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এতে ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায় চারপাশ।

স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, ওখানে তিন’শর মতো দোকানপাট ছিল। সবই পুড়ে গেছে। তবে শেষ খবর অনুযায়ী ফায়ার সার্ভিস ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ চূড়ান্ত করতে পারেনি।

ফায়ার সার্ভিস সূত্র বলছে, আগুনের সূত্রপাত কীভাবে হয়েছে সেটি এখনই স্পষ্টভাবে বলা যাবে না। তবে ধারণা করা হচ্ছে, অবৈধ বৈদ্যুতিক লাইনের শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগেছে। নিম্নমানের ক্যাবল ব্যবহারের কারণেই বারবার বস্তিতে এমন আগুনের ঘটনা ঘটছে।

আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সাথে বস্তিবাসী, সাধারণ জনগণ ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের স্বেচ্ছাসেবী দল অংশ নেন। এর আগে ২০১২, ২০১৫ ও ২০১৬ সালে ডিসেম্বরে এই মহাখালীর সাততলা বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যেকবারই বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh