দ্বিতীয় দিন শেষে ‘এ’ দলের দাপট

তিনটি ওয়ানডের সঙ্গে দুটি চারদিনের ম্যাচের সূচি রয়েছে বাংলাদেশ হাইপারফরম্যান্স ইউনিট (এইচপি) ও ‘এ’ দলের। চারদিনের ম্যাচ দিয়ে শুরু হয়েছে দুই দলের লড়াই। 

ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শেষে দাপট ধরে রেখেছে ‘এ’ দল। নিজেদের ইনিংস ৩৩৯ রানে গুটিয়ে গেলেও এইচপি দল স্কোর বোর্ডে পঞ্চাশ রান জমা করার আগেই ৩ উইকেট তুলে নিয়েছেন ‘এ’ দলের বোলাররা। এইচপির হয়ে ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম ২১ ও তৌহিদ হৃদয় ৫ রানে অপরাজিত থেকে আগামীকাল (শনিবার) চারদিনের ম্যাচের তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন।

ম্যাচের প্রথম দিন শান্তর ৯৬ ও সাদমান ইসলামের ৫৮ রানের সুবাদে ৫ উইকেট হারিয়ে স্কোর বোর্ডে ২৬০ রান তোলে ‘এ’ দল। আজ দ্বিতীয় দিনে ইরফান শুক্কুর ২৮ ও মুনিম শাহরিয়ার ১৫ রান নিয়ে ব্যাটিং শুরু করেন। মুমিন অবশ্য দিনের শুরুতেই আউট হন সেই ১৫ রানেই। শেষদিকে শহিদুল ইসলাম (৩) কামরুল ইসলামও (১২) সুবিধা করতে পারেননি।

তবে একপ্রান্ত ধরে রেখে খেলে দলের সংগ্রহ বাড়ানোর কাজ করেন শুক্কুর। এক ফাঁকে নিজের ফিফটি তুলে নেন তিনি। ছুটছিলেন সেঞ্চুরির দিকে। তবে এইচপি দলের বোলার হাসান মুরাদ বাধা হয়ে দাঁড়ান। শুক্কুরকে ফেরান ৮৫ রানে। ১৭৪ বলের ইনিংসটি এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান সাজান ১০টি চার ও ২টি ছয়ের মারে। এইচপি দলের হয়ে সুমন খান নেন ৪ উইকেট। হাসান মুরাদের সংগ্রহ ২ উইকেট।

এরপর নিজেদের প্রথম ইনিংস শুরু করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়েছিল এইচপির। টেস্ট মেজাজে ব্যাটিং করে দুই ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমন ও তামিম কাটিয়ে দেন ১৪ ওভার। ১৫তম ওভারে ‘এ’ দলের হয়ে ব্রেক-থ্রু আনেন পেসার শহিদুল। ১২ রান করে ইমন আউট হন। 

এর পরের ওভারে স্পিনার নাঈম হাসানের জোড়া আঘাত। ১৬তম ওভারের চতুর্থ ও পঞ্চম বলে মাহমুদুল হাসান জয় (১) ও শাহাদাত হোসেন দিপুকে (০) আউট করে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা তৈরি করেন নাঈম, তবে সেটি অবশ্য পূর্ণ করতে পারেননি তিনি। এতে ৩০ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে বসে এইচপি। দিনের বাকি সময় দলকে আর বিপদে পড়তে দেননি তামিম ও তৌহিদ হৃদয়।

৩ উইকেট হারিয়ে দলীয় ৪১ রান নিয়ে আগামীকাল তামিম ২১ ও তৌহিদ হৃদয় ৫ রানে আবার ব্যাটিং শুরু করবেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //