১১০ রানে আটকে গেল ভারত

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দুবাইয়ে সুপার টুয়েলভের মহাগুরুত্বপূর্ণ লড়াই। এই ম্যাচে যে দল জিতবে, তাদের সেমির পথ অনেকটাই পরিষ্কার হয়ে যাবে। এমন লড়াইয়ে কিউদের বোলিং তোপে মাত্র ১১০ রানেই থেমে গেছে বিরাট কোহলির দল। জিততে হলে নিউজিল্যান্ডকে করতে হবে ১১১ রান।

রবিবার (৩১ অক্টোবর) টস জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

অধিনায়কের সিদ্ধান্তকে যথার্থই প্রমাণ করেন কিউই বোলাররা। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে দলীয় ১১ রানের মাথায় ইশান কিশান (৮ বলে ৪ রান) সাজঘরে ফেরেন ট্রেন্ট বোল্টের শিকার হয়ে।

এরপর ষষ্ঠ ওভারে আরও এক ব্যাটারকে হারায় ভারত। এবার টিম সাউদিকে পুল করতে গিয়ে ডিপ স্কয়ার লেগে ক্যাচ হন লোকেশ রাহুল (১৬ বলে ১৮)।

সেখান থেকে হাল ধরা দূরের কথা, দলকে বিপদে ফেলে ফিরে যান অভিজ্ঞ রোহিত শর্মাও। ব্যক্তিগত ১ রানে জীবন পেয়েও সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি হিটম্যান।

অষ্টম ওভারে ইশ সোধির ঘূর্ণিতে লংঅনে ক্যাচ হন রোহিত। ১৪ বলে ১৪ রানে থামে তার ইনিংস। অধিনায়ক বিরাট কোহলিও (১৭ বলে ৯) একই পথ ধরেন, সেই লংঅনেই তুলে দিয়ে হন সোধির দ্বিতীয় শিকার।

৪৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে ভারত। সেই ধাক্কা আর সামলে উঠতে পারেনি। রিশাভ পান্ত (১৯ বলে ১২) আরও একবার দায়িত্বজ্ঞানহীন শট খেলে অ্যাডাম মিলনের গতিতে স্ট্যাম্প হারান।

সেখান থেকে একটু হাল ধরেছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া আর রবিন্দ্র জাদেজা। কিন্তু এদিকে তো বল শেষ হয়ে যাচ্ছিল। বাধ্য হয়েই হিট করেন হার্দিক। ১৯তম ওভারের প্রথম বলে বোল্টকে তুলে মারতে গিয়ে লংঅফে ক্যাচ হন হার্দিক, ২৪ বলে করেন ২৩। শেষ পর্যন্ত এটিই ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ইনিংস সর্বোচ্চ হয়ে থাকে।

নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট ২০ রানে নেন ৩টি উইকেট। ১৭ রানে ২ উইকেট নেন ইশ সোধি।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //