ICT Division

বাংলাদেশের একমাত্র ভরসা সাকিবই

সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এমন বড় আসরের আগে প্রতিটি দেশেরই বিশেষ প্রস্তুতি থাকে। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিংয়ে সব দলই তাদের সেরাটা প্রদর্শন করার চেষ্টায় থাকে। কমপক্ষে ৪-৫ জন ভালো ব্যাটার ও ৩-৪ জন ভালো বোলার নিয়েই মাঠে নামার প্রস্তুতি নেয়। যাদের প্রত্যেকের ওপরই ভরসা করা যায়; কিন্তু এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাংলাদেশ দলে ভরসা করার মতো একজনই আছেন- অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

কারণ আগে তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহরা ছিলেন। যাদের ওপর ভরসা করা যেত, স্বপ্ন দেখা যেত; কিন্তু তাদের কেউই এখন বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলে নেই। নেই বাংলাদেশ ক্রিকেটের ‘পঞ্চপাণ্ডব’-এর অন্য সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজাও। আছেন শুধু সাকিব। ফলে অস্ট্রেলিয়ার মাটির এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ভরসার প্রদীপ হয়ে জ্বলবেন একমাত্র সাকিবই।

ব্যাট এবং বল হাতে মাঠে সাকিব কী করতে পারেন, সেটা পুরো ক্রিকেট দুনিয়া জানে। ২০০৭ থেকে ২০২১, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সাকিব মোট ৩১টি ম্যাচ খেলেছেন। ব্যাট হাতে করেছেন ৬৯৮ রান, গড় ২৬.৮৪। স্ট্রাইকরেট ১২৪.৬৪। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সাকিবের সর্বোচ্চ ইনিংস ৮৪ রানের। বিশ্বকাপে সাকিবই বাংলাদেশের সর্বাধিক রান সংগ্রহকারী। রান সংগ্রহে তারপর আছেন তামিম ইকবাল (৫১৪), মুশফিকুর রহিম (৪০২), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৩৬৩), মোহাম্মাদ আশরাফুল (২১২), এনামুল হক বিজয় (১৮৪), মোহাম্মাদ নাইম (১৭৪), সাব্বির রহমান (১৭১), মাশরাফি বিন মোর্তুজা (১৬৪), আফতাব আহমেদ (১৬৩), নাসির হোসেন (১৩৬), লিটন দাস (১৩৩), জুনাইদ সিদ্দিক (১২৫), সৌম্য সরকার (১০২), আফিফ হোসেন (৫৪)। এই ১৫ জনের মধ্যে মাত্র ৪ জন আছেন এবারের বিশ্বকাপ দলে।

সাকিব ছাড়া বাকি ৩ জন হলেন- লিটন, আফিফ ও সৌম্য। সাকিবের পর কেবল লিটনের উপর ভরসা করা যায়। এ ছাড়া নাজমুল হোসেন শান্ত, নুরুল হাসান সোহান, মোসাদ্দেক হোসেন, ইয়াসির আলী চৌধুরীদেরও সামর্থ্য আছে বিশেষ করে দেখানোর। তবে ঠিক ভরসা করা বলতে যা বোঝায়, সেটা তারা এখনো অর্জন করতে পারেননি।

ব্যাটিংয়ের মতো বোলিংয়েও বাংলাদেশের সেরা ভরসা সাকিবই। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডটি সাকিবের দখলেই। ১১০.১ ওভারে ৭০৯ রান দিয়ে পেয়েছেন ৪১টি উইকেট। দলের বাকি বোলার মোস্তাফিজ, তাসকিন, মেহেদি হাসান, সাইফউদ্দিন, শরিফুল ও নাসুম সহযোগিতা করতে পারবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশের ব্যাটিং-বোলিংয়ে সেরা তারকা সাকিব সাম্প্রতিক সময়েও নৈপূণ্য বজায় রেখেছেন। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) দুটি ম্যাচে সাকিব সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন। বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে নিউজিল্যান্ডে তিন জাতির টি-টোয়েন্টি আসরে সাকিব দারুণ ব্যাটিং করেছেন। নিজের প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১৬ রান করলেও একই দলের সঙ্গে পরের ম্যাচেই ৪৪ বলে ৭০ রান করেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে সাকিব ৪২ বলে করেন ৬৮ রান।  

অধিনায়কত্বের বাড়তি চাপ সামলাতে হবে তাকে। তার পরও আগের সব বিশ্বকাপের মতো লাল-সবুজ দলের দর্শকদের চোখ থাকবে সাকিবের দিকেই।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //