বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের সহজ জয়

নিউজিল্যান্ডের সামনে মামুলি টার্গেট দিয়েও লড়াইয়ে ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু নিশাম ও স্যান্টনারের জুটিতে সব স্বপ্ন শেষ। এমন পরিস্থিতিতে হানা দিয়েছে বৃষ্টি। এতে বন্ধ হয়ে যায় খেলা। তার আগে অবশ্য ৫ উইকেট হারিয়ে ৯৫ রান তুলে নেয় নিউজিল্যান্ড। তবে, সব রান তাড়া করা লাগে নি ব্ল্যাক ক্যাপদের। ডার্কওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে এরই মাঝে ১৭ রানে জয়ী হয় দলটি। 

আজ রবিবার (৩১ ডিসেম্বর) নিউজিল্যান্ডের মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে টি২০ ম্যাচটি শুরু হয় বাংলাদেশ সময় সকাল ৬টায়। বাংলাদেশ আজ তাদের একাদশে একটি পরিবর্তন আনে। পেসার তানজিম হাসান সাকিবের পরিবর্তে নেয়া হয় স্পিনার তানভীর ইসলামকে।

তবে ইনজুরির কারণে দলে নেই লিটন দাস। অন্যদিকে, নিউজিল্যান্ড একাদশে কোনো পরিবর্তন আনেনি।

বাংলাদেশের দেয়া মামুলি টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে সুবিধা করতে পারেনি নিউজিল্যান্ডও। স্কোরবোর্ডে ৫০ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা। শেখ মেহেদী যার শুরুটা করেন। প্রথম দুই উইকেট তুলে নেন মেহেদী। এরপর শরিফুল তাকে যোগ্য সহায়তা দিয়ে জোড়া উইকেট নেন তিনিও। কিন্তু ষষ্ঠ উইকেটে এসে নিশাম ও স্যান্টনার এসে শক্ত জুটি গড়লে ফিঁকে হতে থাকে বাংলাদেশের জয়ের স্বপ্ন। নিশাম ২৮ ও স্যান্টনার ১৮ রানে অপরাজিত থাকেন। 

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে স্কোরবোর্ডে ৪ রান তুলতেই টিম সাউদির শিকারে পরিণত হন সৌম্য সরকার। কিউই পেসারের বল বাঁক খেয়ে ভেতরে ঢুকতেই লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন, আম্পায়ারের আবেদনের বিরুদ্ধে রিভিউ নিলেও শেষ পর্যন্ত বাঁচতে পারেননি সৌম্য। 

ওয়ানডাউনে নামা অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্তও শুরুটা করেছিলেন চার মেরে। অ্যাডাম মিলনের ওভারে পরপর দুটি বাউন্ডারি মেরে খেলায় কিছুটা লড়াইয়ের আভাস দেয় বাংলাদেশ। কিন্তু চাপ কমাতে গিয়ে শান্ত হয়ে যান অশান্ত। এতে করে যা হওয়ার তাই ঘটে, মিলনের বলে বাউন্ডারি মারার চেষ্টায় ক্যাচ দেন পয়েন্টে। ১৫ বলে তিনি করেন ১৭ রান।

পরের ওভারে সিয়ার্সের বলে আউট রনিও। কিউই পেসারের ইয়র্কারে তিনি এলবিডব্লিউ হয়ে যান। তার বিদায় মাত্র ১০ রানে (১০ বল)। পেস তোপের পর স্পিন ঝলক শুরু করেন কিউই অধিনায়ক মিচেল স্যান্টনার। আফিফ ও হৃদয়রা তেমন সুবিধা করতে পারছিলেন না, সেখানে আবার যোগ দেন ইশ সোধি। এতে করে টাইগাররা আরও বিপাকে পড়ে।

শেষ পর্যন্ত আসা-যাওয়ার মাঝে ইনিংসের ৪ বল বাকি থাকতে অলআউট হওয়ার আগে ১১০ রান করতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। স্যান্টনার ৪টি এবং সাউদি, মিলনে ও সিয়ার্স ২টি করে উইকেট লাভ করেন।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2024 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //