অর্থনীতির চার খাতে মনোযোগ দেয়া প্রয়োজন: সিপিডি

দেশের অর্থনীতির চারটি খাত চিহ্নিত করে সেখানে সরকারের মানোযোগ বাড়ানোর সুপারিশ করেছে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। 

এই চারটি খাত হলো- রাজস্ব আহরণ, ব্যাংকিং, পুঁজিবাজার ও বহিঃবাণিজ্য বা বাণিজ্যিক ভারসাম্য।

২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রারম্ভিক (প্রথম প্রান্তিক) মূল্যায়ন নিয়ে তৈরি করা ‘২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের অর্থনীতির পরিস্থিতি’ শীর্ষক প্রতিবেদনে সংস্থাটি এই সুপারিশ তুলে ধরে।

রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে গতকাল রবিবার আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে সিপিডির বিশেষ ফেলো ড. মুস্তাফিজুর রহমান, নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুন, গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম, রিসার্চ ফেলো ড. তৌফিকুল ইসলাম খান প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করেন।

প্রতিবেদেনে চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে যেসব পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, সেটির কোন ধরনের প্রভাব পড়েছে সেসব বিষয়ও প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়। প্রতিবেদনে সিপিডি রাজস্ব আহরণ বাড়ানো এবং ব্যাংকিং খাত ও পুঁজিবাজারকে আরো শক্তিশালী করতে প্রাতিষ্ঠানিক সংস্কার কর্মসূচি গ্রহণের সুপারিশ করে।

সংস্থাটির বিশেষ ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্ষ বলেন, বিশ্ব অর্থনীতি একটি কাঠামোগত মন্দার দিকে যাচ্ছে। এর থেকে বাংলাদেশকে দূরে রাখার জন্য আর্থিকখাতে সংস্কার কর্মসূচি আরো জোরদার করতে হবে। তিনি মনে করেন জোরালো সংস্কারের অভাবে একশ্রেণীর অসাধু গোষ্ঠী অবৈধ সুবিধা নিচ্ছে। এটা বন্ধ করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, মধ্যমেয়াদ পর্যন্ত অপেক্ষা না করে এবার প্রথম প্রান্তিকে আমরা সামষ্টিক অর্থনীতির মূল্যায়ন তুলে ধরেছি। এর লক্ষ্য হলো সরকার আমাদের বক্তব্য ইতিবাচকভাবে গ্রহণ করে, চলতি অর্থবছরের বাজেট সুষ্ঠুভাবে ও পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে কাজে লাগাতে পারে।


মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh