বৃদ্ধাশ্রমের মায়েদের পাশে নিপুণ

চিত্রনায়িকা নিপুণ।

চিত্রনায়িকা নিপুণ।

করোনা মহামারির এই সময় চিত্রনায়িকা নিপুণ বিভিন্নভাবে মানুষকে সাহায্য করছেন এবং তাদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। এবার তিনি সাহায্য করলেন বৃদ্ধাশ্রমে থাকা মায়েদের। 

রবিবার (১০ মে) মা দিবসে রাজধানীর একটি বৃদ্ধাশ্রমে কিছুটা সময় কাটালেন নায়িকা নিপুণ। সেখানকার বাসিন্দাদের জন্য এক মাসের খাবারের ব্যবস্থাও করেন তিনি।

ছবি ও সঙ্গে দীর্ঘ লেখার মাধ্যমে ফেসবুকে এই কথা জানান তিনি নিজেই।

এ নায়িকা লেখেন, “অনেক নামী-দামী বুদ্ধিজীবী, শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, শিক্ষক, চাকরিজীবী যারা এক সময় খুব বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী ছিলেন, বৃদ্ধ বয়সে এসে নিজের সন্তানের দ্বারাই অবহেলা ও বঞ্চনার শিকার হয়ে বৃদ্ধাশ্রমের স্থায়ী বাসিন্দা হতে বাধ্য হচ্ছেন।

অনেক সন্তান বা আত্মীয়-স্বজন আর তাদের কোনো খবরও নেন না। তাদের দেখতেও আসেন না, এমনকি প্রয়োজনীয় টাকা-পয়সা বা জিনিসপত্রও পাঠান না। বাড়িতে কোনো অনুষ্ঠানে বা ঈদের আনন্দের সময়ও পিতা-মাতাকে বাড়িতে নেন না। এমনও শোনা যায়, অনেকে পিতা বা মাতার মৃত্যুশয্যায় বা মৃত্যুর পরও শেষবারের মতও দেখতে যান না।

বৃদ্ধাশ্রমের কর্তৃপক্ষই কবর দেয়াসহ সকল ব্যবস্থা করেন। তার সন্তানেরা কোন খবর রাখেন না। অথচ মানুষ শিশুকালে এমন অসহায় ও মুখাপেক্ষী যে তার নিজের কোন কাজ করার শক্তি থাকে না, পিতামাতার এই সময় সন্তানদেরকে অতি যত্নে লালন-পালন করেন।

আসুন আমরা নিজ নিজ মা-বাবার প্রতি যত্নবান হই। আর যার যার সমর্থ্য অনুযায়ী বৃদ্ধাশ্রমগুলিতে সাহায্যর হাত বাড়িয়ে দিন।”

তিনি আরো বলেন, “আজকে (১০ মে) আমি ঢাকার উওরাখানে আপন নিবাস বৃদ্ধাশ্রমে এ গিয়েছিলাম ।

সব সমস্যা মিটিয়ে সবাইকে ভালো খাবার দেয়ার সামর্থ্যও সব সময় কর্তৃপক্ষের থাকে না। এই করোনাকালে আমি অনুভব করছিলাম লকডাউনের কারণে তাদের খাদ্য সঙ্কটের কথা । আমার সামর্থ্য মতো আমি ১ মাসের খাবারের ব্যবস্থা করে দিলাম আলহামদুলিল্লাহ। তারা আমাকে বলছিল এত ভালো খাবার ওরা চায় না, চায় শুধু প্রতি মাসে ডাল ভাতের ব্যবস্থা।”

ক্যারিয়ারে বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছেন নিপুণ। অভিনয়ের স্বীকৃতিসরূপ এখন পর্যন্ত দুবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। বর্তমানে অভিনয়ের বাইরে প্রসাধনী ও লাইফস্টাইলকেন্দ্রিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘টিউলিপ নেইলস অ্যান্ড স্পা’ পরিচালনা করছেন তিনি।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh