গোপালগঞ্জের সড়কে ঝরল ৫ শ্রমিকের প্রাণ

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে নছিমনের সংঘর্ষে পাঁচ শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন সাতজন। 

শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল আটটার দিকে কাশিয়ানী উপজেলার পোনা বাসস্ট্যান্ডে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিরা হলেন- কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়নের পারুলিয়া গ্রামের বদির (৩০), মিজান (৪৩), সুমন (২৮), সিরাজুল মোল্লা (৪০)। বাকি একজনের (৪০) নাম জানা যায়নি।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানিয়েছেন, খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ফাল্গুনী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ঘটনাস্থলে পৌঁছালে লিংক রোড থেকে হাইওয়েতে ওঠার সময় একটি শ্রমিকবাহী নছিমনের সঙ্গে সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে মিজান নামের এক শ্রমিক নিহত হন ও ১১ জন শ্রমিক গুরুতর আহত হন।

পরে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও স্থানীয় মানুষ গুরুতর আহত লোকজনকে উদ্ধার করে কাশিয়ানী উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে বদির ও সুমন মারা যান। গুরুতর আহত নয়জনকে কাশিয়ানী উপজেলা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। ছয়জনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে অজ্ঞাত একজন (৪০) এবং গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে সিরাজুল মোল্লা (৩০) নামে আরেকজন মারা যান। কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজিজুর রহমান রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার মো. ইকবাল খান জানান, সকালে কাশিয়ানীর পোনায় ফিডার সড়ক থেকে একটি নছিমন মহাসড়কে ওঠার সময় ফালগুনী পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই এক নছিমন যাত্রী নিহত হন। কাশিয়ানী হাসপতালে আনার পথে আরো দুই নছিমন যাত্রী মারা যান। আহত নছিমনের আরো ৯ যাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আশংকাজনক অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ ও গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।


মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh