মোটরসাইকেল আটকে ঘুষ আদায়, তিন পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

বগুড়ার গাবতলীর বাগবাড়ীতে এক মোটরসাইকেল চালককে আটকে ঘুষ আদায় করায় তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তারা হলেন- গাবতলী মডেল থানার ওসি সাবের রেজা আহম্মেদ, গাবতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোহাম্মদ মুসা ও একই তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই নুর মোহাম্মদ।

গাবতলী সার্কেলের সিনিয়র এএসপি সাবিনা ইয়াসমিন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ গত ২১ এপ্রিল বিকেল ৪টা থেকে বগুড়া জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেন। এ অবস্থায় জেলার সর্বত্র যানবাহন চলাচল সীমিত করা হয়। বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার হাশেম আলী নামে এক ব্যক্তি গত ২৬ এপ্রিল কাজে মোটরসাইকেল নিয়ে গাবতলীর বাগবাড়ী এলাকায় যান। এএসআই নূর মোহাম্মদ তাকে মোটরসাইকেলসহ আটক করে বাগবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে যান। পরে ১০ হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। ওই ব্যক্তি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করেন।

গাবতলী সার্কেলের সিনিয়র এএসপি সাবিনা ইয়াসমিন জানান, মোটরসাইকেল চালকের কাছে টাকা নেয়ার অভিযোগে গত ২৮ এপ্রিল এএসআই নূর মোহাম্মদকে বাগবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র থেকে প্রত্যাহার করে বগুড়া পুলিশ লাইন্সে ক্লোজ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে, সত্যতা পেলে বিভাগীয় মামলা হবে। বৃহস্পতিবার (৩০ এপিল) গাবতলী থানার ওসি সাবের রেজা আহম্মেদ ও গাবতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোহাম্মদ মুসাকে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয়। এরপর পুলিশ সদর দফতরের আদেশে তাদের খাগড়াছড়িতে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের ট্রেনিং সেন্টারে সংযুক্ত করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh