ঈদ শপিংয়ের টাকায় অসহায়দের উপহার

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে একজন মানবিক পুলিশ কর্মকর্তা বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উত্তর জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) খায়রুল আলম।

যিনি তাকাননি পরিবারের দিকে। তাদের এবং নিজেদের ঈদ শপিংয়ের পুরো টাকাই ব্যয় করছেন করোনা পরিস্থিতির শিকার অসহায় মানুষের মাঝে।

নিজেদের ঈদ শপিংয়ের টাকা দিয়ে রাতের আঁধারে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় ওইসব মানুষের বাড়ি বাড়ি উপহার সামগ্রী নিয়ে যাচ্ছেন মানবিক ওই পুলিশ কর্মকর্তা খায়রুল আলম। এরই মধ্যে মহানগরীর বেশ কিছু এলাকায় অসহায় মানুষের হাতে তুলে দিয়েছেন উপহার সামগ্রী।

সর্বশেষ শনিবার (২৩ মে) দিবাগত রাত ৯টার দিকে ব্যক্তিগত তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে নগরীর ব্যাপ্টিস্ট মিশন রোড, সাগরদী দরগাহবাড়ী, বটতলা, কাউনিয়া ও পলাশপুর কলোনিতে ঘুরে ঘুরে নিজের শপিংয়ের টাকায় কেনা উপহার সামগ্রী অসহায়দের মাঝে বিতরণ করেন।

তিনি একাই নন, উপ-পুলিশ কমিশনার খায়রুল আলম এর উপহার অসহায় মানুষের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিতে কাজ করছেন উত্তর জোনের আওতাধিন কাউনিয়া এবং এয়ারপোর্ট থানা পুলিশের কর্মকর্তারাও।

ঈদ সামগ্রী বিতরণ কালে উপ-পুলিশ কমিশনার খায়রুল আলম বলেন, দেশের এই দুর্যোগময় মুহূর্তে সম্মুখ যোদ্ধা হয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজেকে গর্বিত এবং ভাগ্যবান মনে করছি।

তিনি বলেন, দেশের মানুষের সেবক হিসেবে নিজের জীবন উৎসর্গ করতেও দিধাবোধ করবো না। জনগণের জন্য যে কোন সময়, যে কোন প্রয়োজনে আমার দরজা খোলা থাকবে।


এ সময় তিনি জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, করোনা সংকট শুধুমাত্র সরকার, পুলিশ বা আমার একার নয়, এটা এখন আপনার, আমার এবং গোটা বিশ্বের সমস্যা। এই সংকট নিরসনে সকলের সহযোগিতা করা উচিৎ।

তিনি বলেন, করোনার এখনো কোন ওষুধ আবিষ্কার হয়নি। তাই এ থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় একটাই তা হলো ঘরে থাকা। আপনারা ঘরে থেকে করোনা যুদ্ধে সহযোগিতা করুন। একান্ত প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাবেন না।

আমরা আছি আপনাদের যে কোন প্রয়োজনে। পুলিশ আপনাদের সেবায় সর্বদা নিয়োজিত আছে। আল্লাহর অশেষ মেহেরবানীতে আমরা এ যুদ্ধে জয়ী হয়ে আবার নিজ নিজ কর্মস্থলে ফিরে যাবো।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh