বরগুনার সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা

চাঁদাবাজি বন্ধ না করলে বুধবার থেকে বরগুনার সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে বরগুনা জেলা বাস ও মিনিবাস মালিকগ্রুপ।

শনিবার (২০ জুন) দুপুরে বরগুনা সাংবাদিক ইউনিয়নে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, বরগুনা জেলা বাস ও মিনিবাস মালিক গ্রুপের সভাপতি গোলাম মোস্তফা কিসলু।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সাধারণ সম্পাদক সাইনুল ইসলাম ছগির, নির্বাহী সভাপতি নিজামুল আহসান নাজেম, বাবুল মিয়া বাদশা, আশুতোষ, আবদুস শাকুর, ফারুক সিকদারসহ বাস মালিক সমিতির সদস্যবৃন্দ।

সভাপতি বলেন, বরগুনা-মির্জাগঞ্জ- বরিশাল রুটে ৮৫ কিলোমিটার সড়ক তিন জেলায় অন্তর্গত। তিনটি জেলা নিয়ে ওই সড়ক। আমরা তিন জেলা বাস মালিক সমিতি সমন্বয় করে দীর্ঘদিন বাস চালিয়ে আসছি। করোনাভাইরাসের কারণে সারা দেশের ন্যায় বরগুনা বাস মালিক সমিতি বাস বন্ধ রাখে।

এ মাসের ১ তারিখ সড়ক খুলে দিলে  পটুয়াখালী জেলার অধীন মির্জাগঞ্জ ও সুবিদখালীর কথিত বাস মালিক সমিতির সভাপতি বারেক সিকদার ও সাধারণ সম্পাদক সবুজ মৃধা আমাদের যাত্রী বাহি বাস আটক করে যাত্রী নামিয়ে দেয়।

সভাপতি আরো বলেন, বরগুনা থেকে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি বাস থেকে আপ ডাউনে তারা ৫০০ টাকা করে চাঁদা নেয়। শুধু তাই নয় তাদের চারটি বাস অবৈধ ভাবে বরগুনা মির্জাগঞ্জ বরিশাল সড়কে চলতে দিতে হবে। এ সব বিষয় নিয়ে বরিশাল- পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলা সমিতি ৯ জুন হতে দফায় দফায় সভা করলেও মির্জাগঞ্জ বাসী সভার সিদ্ধান্ত মানতে চাইছে না।

বরগুনা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাইনুল ছগির বলেন, আমরা প্রশাসনের কাছে এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করার পর মির্জাগঞ্জ সমিতি কোন সিদ্ধান্ত মানছে না।

তিনি আরো বলেন, মির্জাগঞ্জ পটুয়াখালী সমিতির অধীনে। তারা বাস চালাতে পারবে কিনা সেই সিদ্ধান্ত পটুয়াখালী সমিতি দিবে। পটুয়াখালী ও বরিশালের বাস পটুয়াখালী সিমানা পর্যন্ত চলাচল করে। অথচ বরগুনার বাস চলাচলে বাধা দিচ্ছেন মির্জাগঞ্জ সমিতি।

বরগুনা সমিতির নেতারা আরো বলেন, তিন দিনের মধ্য বরগুনা বাস মালিক সমিতির বাস ওই রুটে চলাচল করতে না দিলে বরগুনা সমিতি আগামী বুধবার থেকে দূর পাল্লার পরিবহনসহ সকল বাস অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ করে দেয়া হবে।

এ ব্যাপারে মির্জাগঞ্জ বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সবুজ মৃধা মুঠোফোনে বলেন, ৯ জুন মির্জাগঞ্জ উপজেলায় বসে যে সিদ্ধান্ত হয়েছে তা পটুয়াখালী ও বরগুনা সমিতি মানতে চায় না। আমাদের ১২ খানা বাস। মাত্র ৪ খানা বাস চলাচলের অনুমতি চাই। আমাদের সড়ক দিয়ে বরগুনা পটুয়াখালী বাস চালাবে অথচ আমাদের কোন সুযোগ দিবে না। যতদিন আমরা সুযোগ না পাব ততোদিন বাস চলাচল বন্ধ থাকবে।

উল্লেখ্য, ১ জুন হতে ওই রুটে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় বরগুনার জনগণ চরম দুর্ভোগে পরেছেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //