নিখোঁজের ১৪ দিন পরেও সন্ধান মেলেনি মুফতি মিজানুরের

নিখোঁজের দুই সপ্তাহ পরেও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উদীয়মান ইসলামি বক্তা মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান কাসেমীর খোঁজ পাওয়া যায়নি। তার সন্ধান পেতে সংবাদ সম্মেলন করেছে পরিবার।

সোমবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত ১ সেপ্টেম্বর হাটহাজারী থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিজ বাড়িতে ফেরার পথে নিখোঁজ হন তিনি। মিজানুর রহমান ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জের শরীফপুর কান্দাপাড়া গ্রামের আবদুল ওয়াহাবের ছেলে। তিনি ভারতের দেওবন্দ মাদ্রাসা থেকে মুফতি এবং হাটহাজারী মাদ্রাসা থেকে মোফাচ্ছের কোর্স সম্পন্ন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, ১ সেপ্টেম্বর দুপুর আড়াইটায়  স্ত্রীকে মোবাইল ফোনে মিজানুর রহমান জানান, চট্টগ্রাম হয়ে তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া আসছেন। এরপর পৌনে ৫টার দিকে শওকত নামে এক বন্ধুকে মিজানুর রহমান ফোন করে জানান তাকে ৪ জন অপরিচিত লোক আটক করে অবান্তর কথাবার্তা বলছেন। বিষয়টি শওকত মিজানুর রহমানের স্ত্রীকে জানান।

এ ব্যাপারে পরদিন হাটহাজারী থানায় মিজানুর রহমানের আরেক বন্ধু মো. নাছির উদ্দিন একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পুলিশ মোবাইল ট্র্যাকিং করে দেখতে পায় সিলেটের জকিগঞ্জের রতনগঞ্জ বাজার এলাকায় তার অবস্থান। পরে সেখানকার থানা পুলিশ সম্ভাব্য কয়েকটি স্পটে তল্লাশি করে তার সন্ধান পায়নি। এরই মধ্যে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি নিখোঁজ মিজানুর রহমানের মোবাইল নম্বর থেকে ফোন করে পরিবারের কাছে ৪ লাখ টাকা দাবি করে। পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেন এ ব্যাপারে তারা র‍্যাবের সহায়তা চেয়েও পাচ্ছেন না।

নিখোঁজ মুফতির সন্ধান পেতে প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন পরিবারের সদস্যরা। সংবাদ সম্মেলনে মিজানুর রহমানের বাবা আব্দুল ওয়াহাব, শ্বশুর এরশাদুল হক, হাফেজ মো. ইদ্রিস ও মুফতি এনামুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh