‘তরকারিতে লবণ বেশি দেয়ায়’ ছোট ভাইকে হত্যা

মাগুরার মহম্মদপুরে বড় ভাই সাখাওয়াত মোল্যার রডের আঘাতে নিহত হয়েছেন ছোট ভাই আলমগীর মোল্যা (১৫)। এ ঘটনায় ঘাতক সাখাওয়াতকে বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। আলমগীর ও সাখাওয়াত উপজেলার ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের লিয়াকত মোল্যার ছেলে।

প্রতিবেশী শাহানাজ হোসেন জানান, গত বুধবার সকালে বড় ভাই সাখাওয়াত কাজে যান। বাড়িতে মা-বাবা না থাকায় ছোট ভাই আলমগীর দুপুরের খাবার রান্না করেন। দুপুরে কাজ থেকে ফিরে খাবার খেতে গেলে রান্না করা ভাত নরম ও তরকারিতে লবণ বেশি হওয়ায় বড় ভাই সাখাওয়াত রেগে যান। এ সময় ছোট ভাই আলমগীর যা আছে তাই খেতে বলেন, অন্যথায় নিজে রান্না করে খাওয়ার কথা জানান। বিষয়টি নিয়ে বাকবিতণ্ডার জের ধরে বড় ভাই লোহার রড দিয়ে আলমগীরের মাথায় আঘাত করেন। তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে সাখাওয়াত পালিয়ে যান। গুরুতর আহত অবস্থায় আলমগীরকে প্রথমে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে ফরিদপুর থেকে রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার দুপুরে আলমগীরের মৃত্যু হয়। ছোট ভাইয়ের মৃত্যুর সংবাদে এলাকাবাসী বড় ভাই সাখাওয়াতকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে।

মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারক বিশ্বাস জানান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আবির সিদ্দিকী শুভ্র ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ বিষয়ে এখনো কোনো মামলা হয়নি। তবে বড় ভাই সাখাওয়াত মোল্যাকে এলাকাবাসী বৃহস্পতিবার বিকেলে আটক করে পুলিশে দিয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে লোহার রড জব্দ করেছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh