নাটোরে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর মরদেহের পরিচয় মিলেছে

নাটোরের লালপুর উপজেলায় উদ্ধার করা অজ্ঞাত পরিচয় নারীর মরদেহের পরিচয় মিলেছে। এছাড়া হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে  একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

আজ বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এ তথ্য জানান হয়। 

প্রেস ব্রিফিংকালে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, গত ৭ অক্টোবর জেলার লালপুর থানাধীন ডহরশৈলা গ্রামের মাদ্রাসার পাশে থেকে ওই অজ্ঞাত পরিচয় নারীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। অনেক চেষ্টা করেও মরদেহের পরিচয় উদ্ধার করতে না পেরে ময়নাতদন্ত শেষে বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে তার দাফন করা হয়। 

তিনি বলেন, এ ঘটনায় পুলিশ গত ৭ অক্টোবর একটি মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পরে মামলার রহস্য উদঘাটন ও ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশের চারটি টিম মাঠে নামে। তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় পুলিশ ভিকটিমের পরিচয় বের করতে সমর্থ হয়। পুলিশ জানতে পারে মরদেহটি লালপুর উপজেলার হাবিবপুর গ্রামের সানোয়ারের ছেলে আসাদুলের স্ত্রী লাকী খাতুনের। 

তিনি আরো বরেন, পরে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ একই উপজেলার আড়বাব মধ্যপাড়া গ্রামের মানিক আলীর ছেলে টুটুল আলীকে মাগুড়া জেলার সদর থানার শিমুলেরঢাল এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। টুটুল স্বীকার করেছে যে- সে ও তার দুলাভাই আসাদুল একত্রে ভিকটিম লাকি খাতুনকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh