মেয়ে হত্যার বিচার দাবিতে রাজপথে বাবা-মা

রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়নের নিজাতপুর গ্রামে শ্বশুরবাড়িতে গৃহবধূ লিমা আক্তার মেঘলাকে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ করে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবি জানিয়েছে নিহতের পরিবারবর্গ এবং এলাকাবাসী।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) দুপুর ১২ টার দিকে রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন থেকে মেঘলার বাবা-মা এ দাবি জানান।

মেঘলার বাবা কেরামত শেখ বলেন, যৌতুকের দাবিতে গত ২৮ সেপ্টেম্বর সকালে লিমা আক্তার মেঘলাকে পরিকল্পিতভাবে পিটিয়ে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে। পরে লাশ রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে রেখে মেঘলানার স্বামী রুমন ও তার পরিবার পালিয়ে যায়। সেই সময় মেয়ের শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের চিহ্ন ছিলো। কিন্তু রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার সঠিক রিপোর্ট না দিয়ে আসামিদের পক্ষে রিপোর্ট দিয়েছে। তাই আমাদের দাবি মেঘলার লাশ পুনরায় উঠিয়ে সঠিক রিপোর্ট প্রদানের মাধ্যমে আসামিদের বিচার বিভাগের আওতায় এনে ন্যায় বিচারের দাবি জানান।

মেঘলার মা মালেকা বেগম বলেন, মেয়ের কথা চিন্তা করে বিয়েতে আমরা তার স্বামীকে এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা দেই। কিছুদিন পরে জামাতা রুমন শেখ আরো টাকার জন্য আমার মেয়েকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে আমাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। এর ১৫ দিন পরে তাকে আবার রুমন তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর গত ২৮ সেপ্টেম্বর আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়। আমি মেয়ে হত্যার ন্যায় বিচার চাই। মেঘলার খুনের সাথে জড়িতদের সকলের ফাঁসি চাই।

এ ঘটনার গত ৮ সেপ্টেম্বর রাজবাড়ী সদর থানায় একটি এজাহার দিয়েছে। এছাড়াও রাজবাড়ী আদালতে ছয়জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ৯ মাস আগে লিমা আক্তার মেঘলার সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়নের নিজাতপুর গ্রামে রুমন শেখের সঙ্গে বিয়ে হয়। মেঘলার বাড়ি গোয়ালন্দের মজিদ শেখের পাড়ায়।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh